Main Menu

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অচিরেই বাংলাদেশ দুর্নীতিমুক্ত হবে: মির্জা কাদের

নোয়াখালী :
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহহীনদের জন্য প্রায় ৪ লক্ষ ৪২ হাজার ৬ শত ৮টি বিনামূল্যে ঘর উপহার দিয়েছেন ।

সেগুলোর মধ্যে দুর্নীতি করার কারণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে জিরোটলার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। আপনারা জানেন ৫জন কর্মকর্তাকে ওএসডি করা হয়েছে। ২জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে। বাকি কর্মচারীদেরকে শোকজ করা হয়েছে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই, তার নেতৃত্বে আগামীতে বাংলাদেশ দুর্নীতিমুক্ত হবে।

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের কাছে রোল মডেল। বাংলাদেশের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। আগামী আড়াই বছরে গ্রাম-শহরে রূপান্তরিত হবে। এখনো যেদিকে তাকাই শহরের মতই লাগে ।

বৃহস্পতিবার রাতে নিজ ফেসবুক এ্যাকাউন্ট থেকে লাইভে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের মির্জা বলেন, শেখ হাসিনা একজন মানবিক নেত্রী হিসেবে স্বর্ণাক্ষরে তার নাম লেখা থাকবে । কারণ ভারতের ছিটমহলবাসীদের কোন পরিচয় ছিল না। বাংলাদেশের শেখ হাসিনা তাদের পরিচয় দিয়েছেন, নাগরিক অধিকার দিয়েছেন। সকল সুযোগ সুবিধা প্রদান করেছেন। ১৬/১৭ লাখ রোহিঙ্গাকে পূর্ণবাসন করেছেন। বিশ্বের অনেক দেশ ছিল, কই কেউ তো রোহিঙ্গাদের পূর্ণবাসন করেনি। করেছে বঙ্গবন্ধুর কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনা।

মেয়র মির্জা বলেন, নোয়াখালীর অপরাজনীতির হোতাদের কমিটি থেকে সরিয়ে ভালো মানুষদের স্থান দিলে শেখ হাসিনার কাছে আমরা চির কৃতজ্ঞ থাকব।

তিনি বলেন, বিগত ৬ মাস ধরে দৈনিক প্রথম আলো ও যায়যায় দিন পত্রিকা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছেন। আমার সাথে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সেলিম সাহেবের সাথে ভালো সম্পর্ক নষ্ট করা ও নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিকে বিলম্ব করার জন্য কারো প্ররোচনায় এই দুইটা পত্রিকা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে ।

সেলিম সাহেবের রেফারেন্সে এসব নিউজ করা হয়েছে।কিন্তু আমি সেলিম সাহেবকে জিজ্ঞেস করলে তিনি জানান গত তিন মাসের মধ্যে দুটি পত্রিকার প্রতিনিধি আমার সাথে যোগাযোগ করেনি।

কাদের মির্জা বলেন, প্রথম আলোর নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি মাহবুবকে বলছি, আপনি আমাদের দল করেন না। আপনি কিভাবে বাংলাদেশের প্রগতিশীল দৈনিক জাতীয় পত্রিকা প্রথম আলোর প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন?

তিনি আরো বলেন, কিছু অনলাইন পত্রিকা প্রতিনিয়ত আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে আমার পরিবার, ওবায়দুল ও জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এসব মিথ্যাচার করছে ।আমি এইসব মিথ্যাচারের নিন্দা জানাই। এইসব পত্রিকায় নিউজের প্রতিবাদ না দিলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও কঠোর হুঁশিয়ারি দেন মেয়র মির্জা।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *