Main Menu

শিক্ষক ক্লাস নেন, আর ছাত্ররা পেছনে বসে পর্ন দেখে: এরশাদ

ঢাকা :

 

দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংসের পথে। শিক্ষক ক্লাস নেন, আর ছাত্ররা পেছনে বসে ইন্টারনেটে পর্ন দেখে। বললেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে শরিয়াহ আন্দোলন বাংলাদেশ আয়োজিত ‘নৈতিকতা বিবর্জিত সমাজ ব্যবস্থাই সব সন্ত্রাসের জন্মদাতা’শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ফেসবুক বন্ধ করতে হবে উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, যে পথে শিশুরা ধাবিত হচ্ছে তা জাতির জন্য অশনি সংকেত। শিক্ষকরা ছাত্রদের দিয়ে নকল করায়। গরু হোক আর গাধা হোক জিপিএ ৫ পেতে হবে। সর্বত্রই অব্যবস্থাপনা চলছে।

বিদ্যুৎ পরিস্থিতির অবনতি ও লোডশেডিংয়ের জন্য সরকারকে দায়ী করেন সরকারের শরিক এরশাদ। তিনি বলেন, ‘রমজান আসছে। বিদ্যুতের কী অবস্থা! সেহরি ও ইফতারির সময় বিদ্যুৎ বিভ্রাট হলে মানুষের ভোগান্তির শেষ থাকবে না।

দেশকে সামাজিক অবক্ষয় থেকে রক্ষা করতে এবং ইসলাম প্রতিষ্ঠায় সব ইসলামী দলকে জাপার জোটে আসার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের জোটে সব ইসলামী দল এখনও আসেনি, এখনও দ্বিধাদ্বন্দ্ব- কিসের দ্বিধা? আমি ইসলামের জন্য অনেক কিছু করেছি। শুক্রবারকে সাপ্তাহিক ছুটি, ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম, মসজিদ-মাদ্রাসা-মন্দিরে পানি ও বিদ্যুৎ বিল মওফুক করেছি। ইসলামের বিরুদ্ধে কথা বললে সহ্য হয় না। কথা দিলাম আজীবন আমি আপনাদের সঙ্গে থাকবো।

শরিয়াহ আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি রফিকুন্নবী হাক্কানীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম ফয়সল চিশতি, জাতীয় ইসলামী মহাজোটের চেয়ারম্যান আবু নাছের ওয়াহেদ ফারুক, মাওলানা আব্দুল লতিফ চৌধুরী, মাওলানা মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ, ফকরুল আহসান শাহাজাদা প্রমুখ।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *