Main Menu

ঠাকুরগাঁওয়ে আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের সব পদে দবিরুলের পরিবার

নিউজ ডেস্কঃ

আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা এমপির পরিবার থেকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

তারা হলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঠাকুরগাঁও-২ আসনের সংসদ সদস্য দবিরুল ইসলামের মেঝ ভাই ও ছোট ভাই। এ নিয়ে এলাকায় সমালোচনা, আলোচনা ও নিন্দার ঝড় উঠেছে।

সোমবার (২৫ নভেম্বর) বিকাল ৩টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে আয়োজিত ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন এমপি। উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দবিরুল ইসলাম এমপি।

সম্মেলন শেষে এমপি দবিরুল ইসলাম তার মেঝো ভাই মোহাম্মদ আলীকে সভাপতি ও ছোট ভাই সফিকুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত ঘোষণা করেন।

সম্মেলন শেষে এমপি দবিরুল ইসলাম তার মেঝো ভাই মোহাম্মদ আলীকে সভাপতি ও ছোট ভাই সফিকুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় অবাক হন দলীয় নেতাকর্মীরা। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক কুরাইশী বলেন, বিষয়টি নিন্দনীয়। তবে চেয়ে চেয়ে দেখা ছাড়া আমার কিছু করার নেই। এ ছাড়া সেখানে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন ছিলেন। তিনি জানেন কী করবেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দবিরুল ইসলাম বলেন, যা হয়েছে সংগঠনের গঠনতন্ত্র অনুসরণ করা হয়েছে। তা ছাড়া আমরা ভাই হলেও পৃথকভাবে বসবাস করছি।

৭১ সদস্যবিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটিতে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন না। সাধারণ সম্পাদক পদে প্রবীর কুমার রায়সহ চারজন প্রার্থী ছিলেন। তবে দুইজন প্রত্যাহার করে নিলেও প্রবীর কুমার রায় পরিস্থিতি দেখে সবকিছু নীরবে মেনে নেন।

বালিয়াডাঙ্গী, রানীশংকৈল আংশিক ও হরিপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত ঠাকুরগাঁও-২ আসনে দবিরুল ইসলাম বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ও আওয়ামী লীগের টিকিটে টানা সাতবারের সংসদ সদস্য।

সাংসদ দবিরুল ইসলাম ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। তার মেজ ভাই মোহাম্মদ আলী উপজেলা আওয়ামী লীগের গত কমিটিরও সভাপতি ছিলেন। মোহাম্মদ আলী বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানও ছিলেন। সাংসদের আরেক ভাই সফিকুল ইসলাম উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ও উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান; নতুন কমিটিতে তিনি সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন।

সাংসদের বড় ছেলে মাজহারুল ইসলাম জেলা আওয়ামী লীগের গত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক। ভাতিজা (মোহাম্মদ আলীর বড় ছেলে) আকরাম আলী বালিয়াডাঙ্গীর বড়বাড়ি ইউপির চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। মোহাম্মদ আলীর আরেক ছেলে আলী আসলাম উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক। সাংসদের ছোট ছেলে মোমিনুল ইসলাম উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি। আর ভাগনে–বউ সুমি আক্তার উপজেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *