Main Menu

তীব্র সাইক্লোনে রূপ নিয়েছে বুলবুল -দূর্যোগ প্রতিমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কঃ
ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ বঙ্গোপসাগর থেকে উত্তর-পশ্চিম উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। তাদের মতে, ঘূর্ণিঝড়টি কাল শনিবার মধ্যরাতের দিকে বাংলাদেশের খুলনা-বরিশাল অঞ্চলের ওপর আঘাত হানতে পারে।

এদিকে শুক্রবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেন, ‘তীব্র সাইক্লোনে রূপ নিয়েছে বুলবুল। সুন্দরবনের হিরণপয়েন্ট দিয়ে আঘাত হানতে পারে এটি। এর প্রভাবে ৭ফুট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাস আঘাত হানতে পারে। বুলবুলের ঝুঁকিতে রয়েছে খুলনা, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, পটুয়াখালী, বরগুনা, পিরোজপুর ও ভোলা।’

আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে জানানো হয়, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’-এর কারণে সাগর উত্তাল হয়ে উঠেছে। ছয় ঘণ্টার ব্যবধানে ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ১০ কিলোমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে চার নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখানো হচ্ছে। এই হুঁশিয়ারি সংকেত আররো বাড়বে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিদপ্তর।

ঘূর্ণিঝড়টির অবস্থান সম্পর্কে আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, আজ সকালে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ৭৬৯ কিলোমিটার দক্ষিণ দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার থেকে ৭১০ কিলোমিটার দক্ষিণ দক্ষিণ-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৬৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৫৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল। ঘূর্ণিঝড়ের বাতাসের গতিবেগ ১১০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন জাহাজ চলাচল বন্ধ রয়েছে। সেন্টমার্টিন দ্বীপে আটকা পড়েছেন কয়েকশ’ পর্যটক। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে সাগর কিছুটা উত্তাল থাকায় গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামে। এর প্রভাবে খুলনায় আজ সকাল থেকেই রোদের দেখা পাওয়া যায়নি। সেখানে আকাশে কালো মেঘ জমে আছে। তবে কোনো বাতাস নেই, নেই বৃষ্টিও।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে আজই বাতাসসহ বড় ধরনের বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। তবে আজ সন্ধ্যা থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

কবে নাগাদ ঘূর্ণিঝড় বুলবুল বাংলাদেশ সীমান্ত অতিক্রম করতে পারে-এমন প্রশ্নে আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান বলেছেন, ‘এটি আগামীকাল শনিবার রাত এবং পরের দিন রবিবার সকাল নাগাদ বোঝা যাবে। তবে এখন যে গতিবিধি রয়েছে তাতে বরিশাল, খুলনা দিয়ে অতিক্রম করার সম্ভাবনা রয়েছে।’

এই মূহূর্তে যে চার নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত রয়েছে, সেটি আজ সকাল থেকেই শুরু হয়েছে বলেও জানান আবহাওয়াবিদরা। এ কারণে নদীবন্দরগুলোতে অতীব সতর্কতার সহিত চলাচল করতে পরামর্শ দিয়েছে স্থানীয় আবহাওয়া অফিস।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *