Main Menu

সোনাগাজীতে অাবারো সাংবাদিককে হুমকি

সোনাগাজী প্রতিনিধি :

সিরাজগঞ্জের শাহাজাদপুরে দৈনিক সমকালের সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল কে গুলি করে হত্যার রেশ না কাটতে সোনাগাজীর সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সাংঘাতিক ঘটনা ঘটাবে বলে প্রকাশ্যে দম্ভোক্তি করলেন পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের মেয়াদোত্তীর্ন কমিটির সাধারন সম্পাদক রফিকুল ইসলাম খোকন।শুক্রবার রাতে উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিন ও যুবলীগ সভাপতি ভাইস চেয়ারম্যান আজিজুল হক হিরনের উপস্থিতিতে তিনি এ দম্ভোক্তি করেন।সংশ্লিষ্ট সুত্র জানায়,শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার সময় পৌরসভার জিরো পয়েন্টর আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিন, ভাইস চেয়ারম্যান হিরন,মেয়র খোকন কয়েকজন নেতাকর্মী নিয়ে অবস্থান করছিলো। এসময় ব্যাক্তিগত কাজে দৈনিক সকালের খবর ও এশিয়ান এজ পত্রিকার সোনাগাজী প্রতিনিধি ও প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আবুল হোসেন রিপনসহ কয়েকজন সংবাদকর্মী আওয়ামীলীগ কার্যালয় যায়। কুশল বিনিময়ের একপর্যায়ে মেয়র খোকন উপস্থিত সংবাদ কর্মীদের উদ্দেশ্যে পূর্বে প্রকাশিত সংবাদের প্রসঙ্গ তুলে সোনাগাজীতে ঠিকভাবে সাংবাদিকতা/সাংঘাতিকতা না করলে যে কোন সময় সাংঘাতিক ঘটনা ঘটাবে বলে প্রকাশ্যে  হুমকি দেন।তার এমন আক্রমানত্বক আচরনে উপস্থিত সবাই হতমম্ব হয়ে যায়।মেয়রের আচরনে সাংবাদিক আবুল হোসেন রিপন প্রতিবাদ করলে তার সাথে বাকবিতন্ডা হয়।একপর্যায়ে উপস্থিত আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ উভয়কে নিবৃত্ত করে।এরপূর্বেও মেয়র খোকন তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের অভিযোগ এনে কয়েকজন সাংবাদিককে হাতপা কেটে ফেলার হুমকি দিয়েছিলো।

প্রসঙ্গত সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের পৌর মেয়র হালিম উল্যাহ মিরুর বিরুদ্ধে পৌরকর বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশের কারনে ক্ষুব্ধ হয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সমকালের প্রতিনিধি শিমুল ককে গুলি করে হত্যা করে মেয়র মিরু।

সোনাগাজী পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম খোকনের বিরুদ্ধেও অস্বাভাবিক পৌরকর বৃদ্ধির অভিযোগ করেছে পৌরবাসী।দায়িত্ব  গ্রহনের পর থেকে তার লাগামহীন কথাবার্তা, বেপরোয়া কর্মকান্ড ও দুর্ণীতিতে জড়িয়ে পড়ার কারনে পৌরবাসী শংকিত হয়ে পড়েছে এমন তথ্য পৌরসভার বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে।তার বিরুদ্ধে টেন্ডার জালিয়াতি,পৌর মার্কেটের দোকান বরাদ্ধে ঘুষ আদায়,জ্ঞাত আয়বর্হিভিত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে গত ১১ নভেম্বর পৌরসভার পাঁচ নং ওয়ার্ডের নুরনবী নামের ব্যাক্তি দুর্ণীতি দমন কমিশনে (দুদক) লিখিত অভিযোগ করে।ফেনী জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারীর সাথে ফেনী-০৩ আসনের স্বতন্ত্র সাংসদ রহিম উল্যাহর বিরোধে সোনাগাজীর অধিকাংশ আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী মামলা হামলায় জর্জারিত হলেও মেয়র খোকনের বিরুদ্ধে অজ্ঞাত কারনে কোন মামলা হয়নি।একারনে অধিকাংশ নেতাকর্মী মেয়র খোকনের সাথে সাংসদ রহিম উল্যাহর গোপন আঁতাত রয়েছে বলে সন্দেহ করেন।এদিকে মেয়র খোকনের হুমকির বিষয়টি জানাজানি হলে সোনাগাজীতে কর্মরত  সাংবাদিকদের মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।তারা ইতিমধ্যে বিষয়টি সোনাগাজী মডেল থানার ওসি,জেলা পুলিশ সুপার,ডিজিএফআই এর ফেনী অফিস,সদরের সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারীসহ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ কে অবহিত করেছে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *