Main Menu

কক্সবাজারে ফেনীর সাগরকে হত্যার ঘটনায় ২ ছিনতাইকারী গ্রেফতার -বাংলারদর্পন

 

চট্টগ্রাম ব্যুরো : র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদ্ঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। র‌্যাবের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, ডাকাত, খুনি, বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, মাদক উদ্ধার, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার করে সাধারণ জনগনের মনে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। 

 

গত ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তারিখে আবু তাহেরসহ তার তিন বন্ধু কক্সবাজার বেড়াতে এসে ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে নির্মমভাবে খুন হয় আবু তাহের ওরফে সাগর। সাগরের বন্ধুদের কাছ থেকে জানা যায়, তারা কক্সবাজার ঘুরতে এসে শহরের ঝাউতলা সড়কের একটি হোটেলে ওঠেন। এরপর তারা লাবণী পয়েন্টে যান। লাবণী পয়েন্ট থেকে ঘুরাঘুরি শেষ করে হোটেলে ফিরে আসার পথে ৫/৬ জন ছিনতাইকারীরা সাগরসহ তার বন্ধুদের ঘিরে ধরে তাদের কাছ থেকে টাকা পয়সাসহ মূল্যবান সব জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়। এতে সাগর প্রতিবাদ করলে ছিনতাইকারীরা তাদের সাথে থাকা ছুরি দিয়ে সাগরের বুকে নির্মমভাবে আঘাত করে। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন সাগরকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। চাঞ্চল্যকর আবু তাহের ওরফে সাগর হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতারের নিমিত্তে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং ব্যাপক গোয়েন্দা নজরদারী অব্যাহত রাখে।

 

এরই ধারাবাহিকায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, চাঞ্চল্যকর সাগর হত্যা মামলার কতিপয় ছিনতাইকারী কক্সবাজার জেলার সদর থানাধীন হাজীপাড়া এলাকায় অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে অদ্য ৩০ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তারিখ ১৭০০ ঘটিকার সময় মেজর মোঃ রুহুল আমিন এর নেতৃত্বে র‌্যাব-৭ এর একটি আভিযানিক দল বর্নিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আসামী ১। মোঃ সাইফুল ইসলাম (১৬), পিতা- মোঃ রফিক, গ্রাম- হাজীপাড়া, থানা- সদর, জেলা- কক্সবাজার এবং ২। মোঃ খায়ের হোসেন (১৭), পিতা- মোঃ শরীফ হোসেন, গ্রাম- হাজীপাড়া, থানা- সদর, জেলা- কক্সবাজার’দেরকে আটক করে। এ সময় গ্রেফতারকৃত ছিনতাইকারীদের নিকট থেকে নিহত আবু তাহের ওরফে সাগরের ছিনতাইকৃত ০১ টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। উলে­খ্য যে, গত ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তারিখের হত্যাকান্ডে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিনতাইয়ের শিকার নিহতের এক ভাই এবং বন্ধু গ্রেফতারকৃত আসামীদের উক্ত হত্যাকান্ডে সম্পৃক্ত ছিল বলে শনাক্ত করে। এছাড়া আসামীদেরকে ব্যপক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা উক্ত পর্যটকের (আবু তাহের @ সাগর) কাছ থেকে টাকা-পয়সা ও মোবাইল ছিনতাই কালে বাধা দেওয়ায় তাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

 

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *