Main Menu

বড়পুকুরিয়া খনি এলাকায় ব্যবসায়ীকে গলা কেটে হত্যা

মোঃ আফজাল হোসেন ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির এলাকায় মোঃ মুরতুজা আলী মিলন (৪০) নামে মোবাইল ফোন ব্যবসায়ীকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।
গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে দিনাজপুরের পার্বতীপুর বড়পুকুরিয়া হামিদপুর ইউনিয়নের বড়পুকুরিয়া-ফুলবাড়ী সড়কের ঘোড়ামারা ব্রীজের নিকট এই হত্যার ঘটনা ঘটে।
হত্যার শিকার,মোঃ মুরতুজা আলী মিলন, ফুলবাড়ী পৌর শহরের উর্ব্বশী সিনেমা হল মাকেটে মিলন টেলিকম নামে মোবাইলের দোকানের স্বত্যাধিকারী, ও বড়পুকুরিয়া বাজারের সন্নিকটে বাশপুকুর গ্রামের স্কুল শিক্ষক শাহাজান আলীর পুত্র।
এই হত্যা ঘটনায় গতকাল বুধবার, নিহতের ছোট ভাই আলী হাছান বাদি হয়ে পার্বতীপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। যার মামলা নং ২২, তারিখ ২১.১২.২০১৬ইং।
পার্বতীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তাক আহম্মেদ জানান, মঙ্গলবার ভোর ৪টায় ঐ এলাকার লোকজন বড়পুকুরিয়া পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দিলে ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই মোঃ ফেরদৌস আহম্মেদ ঘটনা স্থান থেকে এলাকা বাসির সহযোগিতায় মোঃ মুরতুজা আলী মিলন (৪০)কে ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে এলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ততেররন জন্য মর্গে করা হয়। নিহত মোঃ মিলনের পরিবারের সদস্যরা বলেন, প্রতি দিনের ন্যায় রাত ১১ টায় দোকান বন্ধ করে বাড়ী ফিরছিল, পথি মধ্যে তাকে আটক করে দুর বৃত্তরা গলা কেটে হত্যা করে। এ দিকে বড়পুকুরিয়া তাপবিদুৎ কেন্দ্রের শ্রমিক মোঃ নুরুজ্জামান জানান ঐ রাতে সে বাড়ি যাওয়ার সময় বাগড়া মোড় নামক স্থানে ১০/১২ জন লোক দড়ি টানা দিয়ে রাস্তায় মটর সাইকেল আটকের চেষ্টা করে অল্পের জন্য প্রানে বেচে যান। এলাকাবাসি জানান খনি এলাকায় চুরি,ডাকাতী,ছিন্তাই বৃদ্ধি পেয়েছে। পুলিশ ফাড়ির টহল জোরদার নাই। গতকাল বুধবার খনির পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ এস আই ফেরদৌস আহম্মেদ এর সাথে কয়েকবার হত্যার বিষয়ে জানার জন্য মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননিএবং পুলিশ ফাড়িতে গিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *