Main Menu

ফুলগাজীর জিএম হাটে মা ও মেয়ে হত্যায় আটক-২

ফেনী প্রতিনিধি :

 

ফুলগাজীর জিএমহাটে মা-মেয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে যু্বলীগ নেতাসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাতে ফুলগাজী থানা পু্লিশ পূর্ব বশিকপুর গ্রাম থেকে উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুল ইসলাম রনি(৩২)ও একই গ্রামের কাদের মিয়া(৪৫)কে আটক করে।ফুলগাজী থানার ওসি (তদন্ত) জসিম উদ্দিন জানান তারা দু’জনই নিহত সাথীর সাবেক স্বামী শাহাদাত হোসেন রিমনের বন্ধু।প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদেরর জন্য তাদের আটক করা হয়েছে।

এর আগে ফুলগাজীর জিএমহাটে বিবি ফাতেমা সাথী (২৬)নামে এক স্বামী পরিত্যক্তা মহিলাকে কুপিয়ে ও তার ৫ বছরের মেয়ে ইশমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা।বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার জিএমহাট ইউনিয়নের পূর্ব বশিকপুর গ্রামের পাসপোর্ট মনিরের বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।সাথী ওই বাড়ীর মনির আহাম্মদ প্রকাশ পাসপোর্ট মনিরের মেয়ে।খবর পেয়ে পুলিশ রাত ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ ২টি কে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

 

ফুলগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)এম এম মোর্শেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড।

 

এদিকে নিহতের পরিবার হত্যাকান্ডের জন্য সাথী পূর্বের স্বামী শাহাদাত হোসেন রিমন(৩৫)কে দায়ী করেছেন। রিমন ফেনী সদর উপজেলার কাজীরবাগ ইউনিয়নের রাণীরহাট ভূঞা বাড়ীর আব্দুল লতিফ প্রকাশ রঙ্গিন কোম্পানীর ছেলে। ২ মাস পূর্বে সাথী ও রিমনের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে।রিমন চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদকসেবী বলে বলে জানা গেছে।তার বিরুদ্ধে অপহরণ,চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন থানায় ১০টির অধিক মামলা রয়েছে।

ফেনী জেলা প্রশাসক মনোজ কুমার রায় ও পুলিশ সুপার এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার বুধবার রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *