Main Menu

রাঙ্গাবালীতে ধর্ষণের অভিযোগ গ্রেফতার ১

রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :
পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় ১৩ বছর বয়সী এক নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বুধবার রাতে রাঙ্গাবালী ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন এলাকা থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ওই অভিযুক্তের নাম বশার বয়াতি ওরফে ছ্যানা বশার (৩১)।

তার বাড়ি উপজেলার সামুদাবাদ গ্রামে। বুধবার রাতেই রাঙ্গাবালী থানায় বশারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করা হয়। পরে বৃহস্পতিবার সকালে তাকে গলাচিপা জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ছোটবেলা থেকেই উপজেলার সদর ইউনিয়নের চরকাশেম গ্রামের নানা বাড়িতে বসবাসরত ওই নাবালিকা। গত ২৪ এপ্রিল রাতের আধারে তাকে নানা বাড়ি একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে অভিযুক্ত বশার। জানা গেছে, তরমুজ চাষ করতে গিয়ে বশারের আনাগোনা বাড়ে চরকাশেমে। কূ-নজর পড়ে ওই নাবালিকার ওপর।

স্থানীয়রা জানায়, লোকলজ্জা এবং অভিযুক্তের ভয়ের কারণে বিষয়টি এতদিন গোপন ছিল। কিন্তু ঘটনার দুই সপ্তাহ পর বুধবার বিকেলে রাঙ্গাবালী ইউনিয়ন পরিষদে একাধিক ইউপি সদস্যের উপস্থিতিতে বিষয়টি মিমাংসার জন্য শালিস বৈঠকের আয়োজন করা হয়। কিন্তু বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ।

খবর পেয়ে শালিস বৈঠক থেকে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত বশার। পরে তাকে আশপাশ এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়। সূত্র জানায়, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করেও বশার একসময় ছ্যানা (ধারালো দা প্রকৃতির) হাতে লোকজনের সামনে লাফিয়ে পড়তো। যার কারণেই সে এলাকায় ছ্যানা বশার হিসেবে পরিচিত।
এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার ওসি দেওয়ান জগলুল হাসান বলেন, আসামিকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *