Main Menu

ফেনী এলএ শাখায় কমিশন দাবি : অভিযানে প্রমান পেয়েছে দুদক

ফেনী প্রতিনিধি :

ফেনী জেলা প্রশাসকের  ভূমি অধিগ্রহণ শাখায় বিভিন্ন অযুহাতে ভুমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্তদের চেক প্রদানে, ভুমি মালিকের কাছ থেকে ১০%-২০% কমিশন দাবির অভিযোগ উঠেছে।

ভূমি অধিগ্রহণ শাখার উচ্চমান সহকারীকে ১০% কমিশন না দেওয়ায় ক্ষতিপূরণের চেক প্রদানে হয়রানি করার অভিযোগে বৃহষ্পতিবার (২১নভেম্বর) অভিযান পরিচালনা করেন দুদকের তদন্ত টিম।

 

তদন্ত দল সুত্রে জানা যায়, পরশুরাম সহকারি জজ আদালতের দেওয়ানি মামলা নং ১৩৬/২০১৮ এর বিবাদী মোট ২২ জন। গত ০৬/০৮/২০১৯ এবং ২৬/০৮/২০১৯ তারিখে যথাক্রমে ১৭ নং বিবাদী মোহাম্মদ ইসমাইল মজুমদার ও ২২ নং বিবাদী  আবু তৈয়ব অধিকৃত জমির ক্ষতিপূরণের টাকা পাওয়ার জন্য আবেদন করলে ১৭ নং বিবাদী মোঃ ইসমাইল মজুমদারের মামলা রয়েছে বলে তাকে টাকা দেওয়া না হলেও একই মামলার ২২ নং বিবাদী আবু তৈয়ব ০২/০৯/২০১৯ তারিখে ক্ষতিপূরণের চেক পান।

 

সার্বিক রেকর্ডপত্র পর্যালোচনায় দুদক টিম এর নিকট প্রতীয়মান হয়েছে যে, চাহিদামত ১০% কমিশন না দেওয়ায় ১৭ নং বিবাদী মোহাম্মদ ইসমাইল মজুমদার-কে ক্ষতিপূরণের চেক চেক প্রদান করা হয়নি।

 

এ দুর্নীতির পেছনে বিরাজমান সংঘবদ্ধ চক্রের উৎস উদঘাটনে বিস্তারিত অনুসন্ধানের অনুমোদন চেয়ে কমিশনে প্রতিবেদন উপস্থাপন করবে অভিযান পরিচালনাকারী টিম।

 

সুত্র – দুদক

 






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *