Main Menu

সুন্দরবনে বন্ধুকযুদ্ধে বনদস্যু সাহেব আলী বাহিনীর প্রধানসহ নিহত২ : অস্ত্র উদ্ধার

শেখ আমিনুর হোসেন, সাতক্ষীরা ব্যুরো চীফ:

সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জের কলাগাছি এলাকায় বনদস্যু সাহেব আলী বাহিনীর সাথে র‌্যাবের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বাহিনী প্রধান সাহেব আলীসহ দুইজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে শ্যামনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আনা হলে সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদের মৃত ঘোষনা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব সদস্যরা বিপুল পরিমান অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে। বৃহস্পতিবার ভোরে শ্যামনগর উপজেলার কলাগাছিয়া খালে এ ঘটনাটি ঘটে। এদিকে, গোলাগুলিতে র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন কনস্টেবল আরিফ ও শাকিল।

নিহত বনদস্যুরা হলেন, শ্যামনগর উপজেলার পাতাখালী গ্রামের আব্দুর রহমান গাজীর ছেলে বাহিনী প্রধান সাহেব আলী (৩৫) এবং আশাশুনি উপজেলার বাগালী গ্রামের খোকন ঢালীর ছেলে ও বনদস্যু সাহেব আলী বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড হাবিবুর রহমান (২৮)।

 

উদ্ধারকৃত অস্ত্রর মধ্যে রয়েছে, ২ টি একনালা বন্দুক, ১ টি পাইপ গান, ৩২ রাউন্ড গুলি ও একটি দাসহ বিভিন সরঞ্জাম।

র‌্যাব -৬ এর লে. কমান্ডার জাহিদুল কবির জানান, সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জের কলাগাছিয়া খালে বনদস্যু সাহেব আলী বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি ও অপারেশন অফিসার এ.এসপি তোফাজ্জেলের নেতৃত্ব র‌্যাব সদস্যরা সেখানে অভিযান চালায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বনদস্যুরা র‌্যাবের উপর গুলি বর্ষন করে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি বর্ষন করে।

 

প্রায় ঘন্টাব্যাপি বদুকযুদ্ধে সাহেব আলী বাহিনীর সদস্যরা পিছু হটে যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে বাহিনী প্রধান সাহেব আলীসহ দুইজনকে আটক করে শ্যামনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আনা হলে সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদের মৃত ঘোষনা করেন। তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়েছে এবং র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *