Main Menu

চাকরি প্রার্থী এক ছেলের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট চিঠি ।

আবদুল্লাহ রিয়েল নিজস্ব প্রতিবেদক:সোহাগ গাজী বিভিন্ন মানুষ কে ফেসবুকে মেসেজ দিয়ে জানাচ্ছেন এভাবে
এড়িয়ে যাবেন না কেউ দয়া করে পড়ুন।
আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার
নিকট সদয় দৃষ্টি আর্কষন করছি যে আমি অসহায়
দরিদ্র ও গরীব বলে কি ঘুষ ছাড়া সরকারি চাকরি
পাবো না ?????????? “”””””””””””মাননীয়
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট ভূমিহীন
সন্তানের
ঘুষ বিহিন সরকারি চাকরির আবেদন”””””””””””। মাননীয়
প্রধানমন্ত্রী বেকারের জননী শেখ হাসিনার
নিকট ঘুষ ছাড়া সরকারি চাকরি
চাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, কি রকম যে দেশের
উন্নয়ন হচ্ছে; তা বুঝতেই দুচোখ ভরে যায়
পানিতে। কারণ এদিকে অসহায় হতদরিদ্র বাবার ঘাড়ে
বসে লেখাপড়া করতে করতে আমাদের না
খেয়ে মারা যাবার মত অবস্তা প্রায়, যার প্রতি সরকারের
দৃষ্টি নেই বললেই চলে। সরকার কি অন্ধ???????? না
কি যে ব্যাক্তিরা ঘুষ দিতে পারে সরকার তাদের প্রতি
সুনজর দিয়ে থাকেন। আমার কিন্তু তা মনে হয়
না, কারন আপনার নেতৃত্বে দেশ আজ এগিয়ে
যাচ্ছে ডিজিটাল রুপে; তাহলে আমরা কেন
অসহায়…????? মাননীয় জননী, আমার বাবা যেখানে
আমাদের এক বেলা ঠিক মত, খেতে দিতে পারে
না। সেখানে আর পাঁচ/ছয় লক্ষ টাকা ঘুষ দিয়ে
কিভাবে আমার কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবে..! আমার
বাবা সরকারকে ঘুষের টাকা দিতে পারেনা
বলেই, আজ ও আমাদের পরিবারের এত কষ্ট করে
বেঁচে থাকতে হচ্ছে। আর এই যে আমরা অসহায়
ও দরিদ্র বলে এবং কৃষক বাবার ঘরে জন্ম নিয়েছি
বলে কি; আমার কোন সরকারি চাকরী হবে
না…????? মাননীয় জননী, আমার ছোট বেলা
থেকে একটা ইচ্ছা ছিলো যে বড় হয়ে
বাংলাদেশের পুলিশে, নৌবাহিনী, সেনাবাহিনীর
সিভিলে, বিমান বাহিনী বা কাষ্টমের যে কোন
এক
বাহিনীতে যোগ দান করে দেশের জন্য কিছু
করবো। কিন্তু এখন দেখি ঘুষ ছাড়া চাকরী হচ্ছে
না, যা আমার বাবার
পক্ষে প্রদান করা সম্ভব নয়। তাহলে কি ঘুষের টাকার
অভাবে আমার যোগ্যতা অনুযায়ী কোন
বাহিনীতে চাকরি হবে না..!! মাননীয়
নেত্রী, আমার বাবার তো ঘুষ দেওয়ার মত কোন
ক্ষমতা নাই, তাই গত ১/১১/১৬ইং তারিখে গোপালগঞ্জ
থেকে নৌবাহিনীতে দাঁড়িয়ে ছিলাম
যে বিনা টাকায় চাকরী হয় নাকি। কিন্তু সেদিন কার ঘটনা
দেখে আমি এবং আমার পরিবার খুবই দুঃখ পেলাম। সেটা
হলো নিয়োগ এ উল্লেখ আছে ৫-৪” তে
লোক নিবে কিন্তু মাঠে যখন লোক নেওয়া শুরু
করলো; তখন দেখি ৫-৮” আর ৫-৬” যারা আছে
তাদেরকে রাখলো; আর আমরা ৫-৪” তে যে সব
লোক আছি সবাই বাদ পড়লাম। এটা কি ঠিক কাজ
হলো, নাকি ঘুষ
দিতে পারি নাই বলে আমার চাকরীটা হলো না। আমার
উচ্চতা ৫-৫” মাননীয় প্রাধানমন্ত্রী লক্ষ লক্ষ
বেকারের জননী শেখ হাসিনার নিকট আমার আকুল
আবেদন আমাকে ঘুষ ছাড়া চাকরির ব্যবস্থা করে
দিবেন, তাহলে আমি আমার জনম দুঃখী পিতা মাতার
সেবা করার সুযোগ পেতাম। তাই আপনার নিকট
আরজিটা পেশ করলাম। আশা করি আপনি আমার জন্য
কিছু ব্যবস্থা গ্রহন করবেন। তাহলে আমার খুবই
উপকার হবে কারন আমরা খুবই সম্যসা ও কষ্টের
মধ্যে দিয়ে দিন কাটাইতেছি। আমরা দরিদ্র হয়েও
সরকারের নিকট থেকে কোন সাহায্য পাই না। আর
সবচেয়ে দুঃখের ঘটনা হলো, আমার চাচা বি এন পি
সরকার ক্ষমতায় থাকার সময় আমার বাবাকে জেলে
আটকে রেখে আমার চাচা দাদার নিকট থেকে
জোর করে সব সম্পত্তি নিজের নামে লিখে
নেয়। আর আমাদের পরিবারে আমার বাবা ছাড়া
উপার্জন করার মত আর কেউ নাই। আমার বাবা যখন
জেলে ছিল, তখন আমার মা অনেক কষ্ট করে
আমাদের লেখা পড়ার খরচ চালিয়েছেন। আমরা দুই
ভাই, দুই বোন। আমার বাবা এখন কর্মহীন হয়ে
গেছে। তাই আমার একটা সরকারি চাকরির খুবই
দরকার। আমি সরকারের নিকট আকুল আবেদন করছি।
যে আমার উচ্চতা অনুযায়ী পুলিশের, সেনাবাহিনীর
সিভিলে, নৌবাহিনী, বিমানবাহিনী, বা, কাষ্টমের
যেকোন এক বাহিনীতে যোগ দানের ব্যবস্থা
করে দিলে আমি আমার বাবা- মায়ের দুঃখের সময়ে
তাদের খেদমত করতে পারি; সেই সাথে আমার
মনেরইচ্ছাও পুরণ হবে। আমার ইচ্ছা ছিল
বাংলাদেশের
যেকোন একবাহিনীতে যোগ দান করে, সততার
সাথে দেশের জন্য কাজ করবো কিন্তু ঘুষ ছাড়া
আমার সে স্বপ্ন অসম্ভব হয়ে পড়ছে। আমাদের
ঘুষের টাকা দেওয়ার মত কোন ব্যবস্থা নাই। তাই
ঘুষ ছাড়া আপনার কাছে একটা চাকরির আশা করিতেছি।
আমাকে প্রতিদিন শ্রমজীবীর মত কাজ করে
নিজের সংসার চালাতে হয়। আর নিজের লেখাপড়ার
খরচ চালাইতে হয়। আমি আমার পরিবার নিয়ে দুবেলা
দুমুঠো খেতে চাই। বাবা মায়ের চোখের পানি
মুছাতে চাই। দয়া করে জননী আমাদেরকে
বাঁচান……. কারন আপনি ছাড়া আমার সাহায্য চাওয়ার বা দিবার
মত কেউ নাই। আমরা খুবই অসহায় ও পরে জায়গায়
এখনও বসবাস করি, এক কথাই আমরা ভূমিহীন। তাই
আমার প্রতি দয়া দৃষ্টি প্রদান করে একটা সরকারির চাকরি
দেওয়ার ব্যবস্তা করবেন। ইতি……. হত ভাগ্য এক
অসহায় দরিদ্র ও কৃষক পিতা-মাতার সন্তান।
“”””””””””””জীবন বৃওান্ত “””””””””””””
(১) নাম:সোহাগ
গাজী।
(২) পিত:বোরহান উদ্দীন গাজী।
(৩)
মাতা:হোসনেআরা বেগম।
(৪) বতর্মান
ঠিকনা: গ্রাম বোড়াশী, ডাকঘর: দীঘার কুল-৮১০০, থানা
ও জেলা গোপালগঞ্জ।
(৫) স্থায়ী ঠিকনা: গ্রাম
বোড়াশী, ডাকঘর: দীঘারকুল-৮১০০, থানা
ও জেলা গোপালগঞ্জ।
(৬) জন্ম তারিখ:
২৮/৯/১৯৯৮
(৭) জাতীয়তা: বাংলাদেশী।
(৮) উচ্চতা: ৫ ফুট ৫
ইঞ্চি।
(৯) বৈবাহিকা: অবিবাহিত।
(১০) লিঙ্গ: পুরুষ।
(১১)মোবাইল
নাম্বার: 01748540573
(১২) Facebook: Helal Gazi
sohag
(১৩) শিক্ষাগত যোগ্যতা: এস.এস.সি – বানিজ্য – ৩.২৫
ঢাকা
বোর্ড ২০১৪ সন। এইচ.এস.সি – মানবিক – ২.৬৭ ঢাকা
বোর্ড ২০১৬ সন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *