Main Menu

সাতক্ষীরায় ১৫ দিনে ৬ খুনসহ ২৩ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু

শেখ আমিনুর হোসেন,সাতক্ষীরা :

 

দেশের দক্ষিণাঞ্চলে সীমান্তবর্তী সাতক্ষীরা জেলায় ১৫ দিনে ৬ খুনসহ ২৩ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। চলতি মাসের ৪ সেপ্টেম্বর থেকে ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত খুন হয়েছে ৬, আত্মহত্যা করেছে ২, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ৩, পানিতে ডুবে মারা গেছে ৩, বজ্রপাতে ৪ নিহত হয়েছে, সাপের কামড়ে ১, বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে প্রাণ হারিয়েছে ১ জন। এছাড়া বিভিন্ন জায়গা থেকে ৩ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে জেলা পুলিশের দাবী দুই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি পুলিশের নিয়েন্ত্রণে আছে। জেলা পুলিশের তথ্য ও স্থানীয় দৈনিক থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

 

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের দেয়া তথ্যমতে, জেলায় গত ১৫ দিনে জাতীয় পার্টির ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৬ জন খুন হয়েছে।

সূত্রমতে, চলতি সালের ৯ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও কৃষ্ণনগরের ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন দুর্বৃত্তদের গুলিতে মারা যান। তিনি বালিয়াডাঙা বাজারে ইউনিয়ন যুবলীগ অফিসের সামনে বসে থাকা অবস্থায় দু’টি মোটরসাইকেলে এসে দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে পালিয়ে যায়। ১১ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরার তালা উপজেলার পৃথক দুটি স্থানে দুটি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। ওইদিন রাত ৮টার দিকে উপজেলার নগরঘাটা গ্রামে মাদকাক্ত মেয়ে টুম্পার রডের আঘাতে মমতাজ বেগম নামে এক মায়ের মৃত্যু হয়। অপরদিকে একই দিন সন্ধ্যায় উপজেলার ঝড়গাছা গ্রামের একটি ডোবা থেকে গোপাল ঘোষ নামে একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ১২ সেপ্টেম্বর পরকিয়ায় বাধা দেয়ায় সাতক্ষীরার আশাশুনিতে স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠে। নিহতের নাম দিপালী মন্ডল (২৫)। ১৫ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের কৃষ্ণনগর ইউপি চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফ হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামি ইউপি সদস্য জলিল গাইন গণপিটুনিতে নিহত হয়। এলাকাবাসী তাকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে গণপিটুনি দেয়। ১৭ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরায় যৌতুকের দাবিতে শাহানারা খাতুন (২০) নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতন চালিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠে।

পুলিশ জানায়, গত ১৫ দিনে সাতক্ষীরায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ৩জন। সূত্রমতে, ৪ সেপ্টেম্বর তালায় সড়ক দুর্ঘটনায় অরুন কুমার রায় (৪৫) নামের একজন নিহত হয়। এসময় আরো দু’জন আহত হয়। ৮সেপ্টেম্বর ইজিবাইকের চাকায় গলার ওড়না পেচিয়ে এলিনা খাতুন (২৮) নামে এক শিক্ষিকার মৃত্যু হয়। ১৭ সেপ্টেম্বর শ্যামনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় কাশেম তরফদার (৫৫) নামে এক ভ্যান যাত্রী নিহত হন।

পুলিশ ও এলাকাবসির দেয়া তথ্যমতে, জেলায় গত ১৫ দিনে আত্মহত্যা করেছে ২ জন। সূত্রমতে, ৬ সেপ্টেম্বর শাশুড়ির নির্যাতন সইতে না পেরে কলারোয়ায় দুই সন্তানের জননী ময়ুরী খাতুন (২৮) নামে গৃহবধু আত্মহত্যা করে। ১৬ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরা জেলাসাতক্ষীরার মাধবকাঠি দাখিল মাদ্রাসার একটি শ্রেণিকক্ষ থেকে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত গৃহবধূর নাম রেখা খাতুন (৩২)। তবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা নিশ্চিত করে বলতে পারেনি পুলিশ।

গত ১৫দিনে পানিতে ডুবে মারা গেছে ৩ জন। সূত্র জানায়, ৮ সেপ্টেম্বর জেলার শ্যামনগরে পানিতে ডুবে মিম (৩) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়। ১৭ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরার তালা উপজেলার তেঁতুলিয়ার আড়ংপাড়া গ্রামের ৯ বছরের শিশু কণ্যা নুপুর পুকুরে পানিতে ডুবে মারা যায়। ১২ সেপ্টেম্বর পাটকেলঘাটায় ৮০ বছরের বৃদ্ধা মহিলার পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়।

এদিকে, গত ১৫ দিনে জেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে ২টি লাশ উদ্ধার করা হয়। সূত্র মতে, ৬ সেপ্টেম্বর আশাশুনির একটি মৎস্য ঘের থেকে কমলেশ মন্ডল নামে এক কলেজ শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। কমলেশ মন্ডল (২১) সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের ভূগোল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ সম্মান শ্রেণির ছাত্র। ১৪ সেপ্টেম্বর শ্যামনগরে নির্মল মন্ডল (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এদিকে গত ১৫ দিনে জেলার বিভিন্ন জায়গায় প্রাকৃতিক দুর্যোগ বজ্রপাতে স্কুল শিক্ষার্থীসহ ৪জনের মৃত্যু হয়। সূত্রমতে, ১২ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার চম্পাফুল বাজার এলাকায় বজ্রপাতে ৮ম শ্রেণি পড়ুয়া দুই স্কুল ছাত্রী নিহত হয়। আহত হয়েছে একই ক্লাসের আরো দুই স্কুল ছাত্রী। নিহত বিলকীস খাতুন (১৪)। ও সাতক্ষীরা সদরে নিয়ে যাওয়ার পথে ময়না খাতুন (১৪) মারা যান। একইদিন সাতক্ষীরার আশাশুনিতে তাসেল (৩২) বজ্রপাতে নিহত হয়। ৪ সেপ্টেম্বর আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি ইউনিয়নের খেঁজুরডাঙ্গা বিলে বজ্রপাতে মনোরঞ্জন দাশ (৪৫) নামে এক দিনমজুর নিহত হয়েছেন।

এছাড়া ১২সেপ্টম্বর সাতক্ষীরার কলারোয়ায় বিদ্যুৎপৃষ্টে এক টাইলস মিস্ত্রির মৃত্যু হয় এবং ১৩ সেপ্টেম্বর শ্যামনগরে সাপের কামড়ে ফারুক হোসেন (২৭) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়। বেশ কয়েকটি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করেছে ভুক্তভোগিরা। এদিকে পুলিশ গত ১৫ দিনে জেলায় বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে কয়েক শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করেছে।

১২ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরায় ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতীকী কবর খুঁড়ে নৈরাজ্য ও নাশকতা সৃষ্টিকারী জামায়াত ক্যাডার মোকছেদ আলী ওরফে খোকাকে (৫৬) অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এছাড়া গত একমাসে মাদক বিরোধী অভিযানে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের পাশাপাশি বিজিবির অভিযানে আটক হয়েছে বিপুল পরিমান চোরাচালান পণ্য।

সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মেরিনা আক্তার বলেন, দুই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া সাতক্ষীরার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি জেলা পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আছে। চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই ও খুনের ঘটনা অনেক কম হচ্ছে। তারপরও আমরা এই বিষয়ে খেয়াল করবো এবং কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া নেব। আমাদের কার্যক্রম চলছে খুব দ্রুত ভালো ফল পাওয়া যাবে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *