Main Menu

বি. চৌধুরীর জাতীয় সরকারের প্রস্তাবকে যেভাবে ব্যাখ্যা করছে বিএনপি | বাংলারদর্পন 

নিউজ ডেস্ক: সম্প্রতি অধ্যাপক ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরীর তরফ থেকে জাতীয় সরকারের প্রস্তাব আসা নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে তথা বিশেষ করে বিএনপিতে চাঞ্চল্যের সৃ্ষ্টি হয়েছে। এমতাবস্থায় জাতীয় সরকারের দাবিকে নাকচ করে দিয়ে বদরুদ্দোজা চৌধুরীর প্রস্তাবনাকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করছে বিএনপি। বিএনপির নেতারা বলছেন, জাতীয় সরকারের প্রস্তাব বদরুদ্দোজা চৌধুরীর ক্ষমতা পাওয়ার লোভে স্রেফ দূরভিসন্ধি।

উল্লেখ্য, ২৯ মে রাজধানীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে বিকল্পধারার এক ইফতার মাহফিলের আগে দেওয়া বক্তব্যে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর জাতীয় সরকার গঠনের প্রস্তাব দিয়েছেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

বদরুদ্দোজার প্রস্তাব নানা মহলে নানাভাবে ব্যাখ্যা করা হলেও বিএনপি আহ্বানকে একটি ‘ষড়যন্ত্র’হিসেবেই দেখছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ বলছেন, বদরুদ্দোজা চৌধুরী জাতীয় সরকারের যে দাবি তুলেছেন তা একেবারেই প্রাসঙ্গিক দাবি নয়। এই প্রস্তাব আওয়ামী লীগকে বাঁচানোর কৌশল।’

বিএনপির নেতারা বলছেন, ৮৮ তে যেমন আ.স.ম আব্দুর রব গৃহপালিত বিরোধী দলের নেতা হয়েছিলেন, এখন যেমন এরশাদ, তেমনি বি. চৌধুরী গৃহপালিত নেতা হতে চান। তিনি রাষ্ট্রপতি থেকে এখন মন্ত্রী হতে চান। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, আগামী নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগকে বৈধতা দিতে চান।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য বলেন, ‘বি. চৌধুরী সাহেব দীর্ঘ দিন ক্ষমতার বাইরে। এখন তাঁর একটু হালুয়া রুটি খাবার সাধ হয়েছে। এজন্য তিনি জাতীয় সরকারের আবদার করছেন। আগামী নির্বাচনে তিনি অংশ নেবেন এবং এরশাদের মতো বিশেষ দূত হবেন। ক্ষমতার লোভে তিনি নিজে দিশেহারা হয়ে জাতীয় সরকারের দাবি তুলছে।’

প্রসঙ্গত, জাতীয় সরকারের দাবিতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *