Main Menu

নবীপ্রেম ও আনুগত্যেই ইমানের বহিঃপ্রকাশ ঘটে – অধ্যক্ষ শায়খ ছৈয়্যদ মুহাম্মদ মুনির উল্লাহ্

 

মোঃ আলাউদ্দীন :

কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফের মহান মোর্শেদ আওলাদে রাসূল হযরতুলহাজ্ব আল্লামা অধ্যক্ষ শায়খ ছৈয়্যদ মুহাম্মদ মুনির উল্লাহ্ আহমদী মাদ্দাজিল্লুহুল আলী বলেছেন, প্রিয়নবী (দঃ)’র প্রতি নিখাদ প্রেম-ভালোবাসা ও পূর্ণ আনুগত্যেই ইমানের বহিঃপ্রকাশ ঘটে, অর্জিত হয় আল্লাহর সন্তুষ্টি। আর একবিংশ শতাব্দীতে অগনিত মুসলিম যুবকের অন্তরে সেই নবীপ্রেম ও ভালোবাসা জাগিয়ে তুলেছিলেন খলিফায়ে রাসূল হযরত গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আন্হু। যিনি তাঁর অনুসারী লাখো যুবককে প্রাত্যহিক জীবনে সুন্নাতে নবীর পরিপূর্ণ অনুসরণে পথ চলতে শিখিয়েছেন।

তিনি গতকাল ৩০ মার্চ শুক্রবার চট্টগ্রাম মহানগরীর আগ্রাবাদ সিজিএস কলোনী মাঠে আয়োজিত বিশাল এশায়াত মাহফিলে হাজারো নবীপ্রেমিক মুসলমানের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

তিনি আরও বলেন, মি’রাজ হচ্ছে মহানবী (দঃ)’র সর্বশ্রেষ্ঠ মুযিজা। মিরাজের রাত্রিতে আল্লাহর সাথে প্রিয়নবীর একান্ত আলাপনে উম্মতে মুহাম্মদীর জন্য আল্লাহর উপহার নামাজ-রোজা পালনেই সম্ভব আল্লাহর নৈকট্য ও রাসূল (দঃ)’র সন্তুষ্টি অর্জন। আর কাঙ্খিত এ লক্ষ্য অর্জনে কাগতিয়া দরবারে রয়েছে নামাজ-রোজা পালনে কঠোর নির্দেশনা, সুন্নাতে নববী ও আদর্শে জীবন গড়ার আধ্যাত্মিক ব্যবস্থাপনা।

কাগতিয়া দরবারের প্রতিষ্ঠাতা খলিলুল্লাহ আওলাদে মোস্তফা খলিফায়ে রাসূল হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আন্হুর স্মরণে আয়োজিত এ মাহফিলের আয়োজন করে মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ ১৪৯ নং হালিশহর ও আগ্রাবাদ শাখা।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন চৌধুরী (বাচ্চু) এর সভাপতিত্বে মাহফিলে বিশেষ অতিথি ছিলেন কানাডা মেমোরিয়াল ইউনিভার্সিটির পিএইচডি গবেষক অধ্যাপক জালাল আহমদ, গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজ এর ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম, আগ্রাবাদ সি জি এস কলোনী এসোসিয়েশন সচিব মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন,টেকনাফ মডেল থানার ইন্সপেক্টর মোহাম্মদ শফিউল আজম, বাংলাদেশ ব্যাংক এমপ্লয়ীজ কো-অপারেটিভ সোসাইটি লি: চট্টগ্রাম এর উপদেষ্ঠা ও সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান মিয়া, বাংলাদেশ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ ইলিয়াছ  ।

সভাপতির বক্তব্যে মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন চৌধুরী (বাচ্চু) বলেন, তাকওয়া ও পরহেজগারিতা যুবকদের করে তোলে সুশৃঙ্খল ও বিনয়ী। যার দৃষ্টান্ত হচ্ছে কাগতিয়া দরবারের সাথে সম্পৃক্ত হাজার হাজার যুবক।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন কাগতিয়া কামিল এম এ মাদরাসার মুহাদ্দিস আল্লামা মুহাম্মদ আশেকুর রহমান, সংগঠনের ওলামা পরিষদের সহ-এশায়াত সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ ফোরকান, মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ রশিদী প্রমুখ

মাহফিলে শহরের অনেক গন্যমান্য ব্যক্তি, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি ও তাদের সন্তান, আলেম, ছাত্র, শিক্ষক, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী ছাড়াও সর্বস্তরের মানুষ যোগদান করেন। মাগরিবের পরপর মাহফিলস্থলের বিশাল মাঠ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। মাঠে জায়গা না পেয়ে অনেককে কলোনীর রাস্তায় ও বাসার ছাদে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। মিলাদ ও কিয়াম শেষে প্রধান অতিথি দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহ্র ঐক্য, সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং কাগতিয়া দরবারের প্রতিষ্ঠাতা গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আন্হুর ফুয়ুজাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত করেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *