Main Menu

দ: সুনামগঞ্জের পশ্চিম বীরগাঁওয়ে সেতু আছে সড়ক নেই

 

মো.নাইম তালুকদার, সুনামগঞ্জঃ

 

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নে পরিকল্পিত রাস্তার উপরে সেতু আছে সংযোগ সড়ক নেই। উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নে পাচ গ্রামের বাসিন্দাদের  যাতায়াতের জন্য  ঠাকুরভোগ আলমগীরের বাড়ীর সামনের খালের উপর  একটি ব্রীজ  নির্মাণ করা হয়। কিন্তু নির্মাণের এক বছর অতিবাহিত হলেও সংযোগ সড়ক না থাকায় ব্রীজটি  এলাকার মানুষজনের যাতায়াত করতে কোন কাজে  আসছে না, অকেজো হয়ে পড়ে আছে  ব্রীজটি । দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পাচ গ্রামের হাজারো মানুষজনের। কুমলমতি স্কুল শিক্ষার্থী ও এলাকার বায়োবৃদ্ধের সীমাহীন কষ্ট হচ্ছে। ব্রীজের সাথে সংযোগ সড়ক না থাকায়।

২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৩২ ,লাখ ৪২  হাজার  ৬৫৩ টাকা ব্যয়ে বাংলাদেশ দূর্যোগ ব্যবস্থাপনার সেতু কালভার্ট নির্মাণ কর্মসূচির অধিনে ২০১৫- ২০১৬ খ্রি: নির্মান করা হয়।

 

এই সেতুটির নির্মাণকাজ করে সুনামগঞ্জ জেলা শহরের এসডি এন্টারপ্রাইজ আবু হানিফ কনস্ট্রাকশন।

গত  বুধবার হাওর রক্ষা বাঁধ দেখতে গিয়ে  দুপুরে দেখা যায়, ঠাকুরভোগ আলমগীরের বাড়ীর সামনে বহু প্রতীক্ষিত পরিকল্পিত  উপজেলার শান্তিগঞ্জ-রজনীগঞ্জ সড়কের উপর  ৪০ ফুট দৈর্ঘ্যের একটি নতুন  ব্রীজ ঝলমল করছে। কিন্তু সেতুর উপর দিয়ে যাচ্ছেন না কেহ।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের মধ্যে কৃষি নির্ভর ইউপি পশ্চিম বীরগাঁও। এ সেতু দিয়ে অনেকেই ধান ও গো-খাদ্য বাড়ীতে নিয়ে আসার আশা করেছিলেন। কিন্তু সেতুর সংযোগ সড়ক না থাকায় এলাকার কৃষদের আশা পূরণ হয়নি। অনেকেই  বহু কষ্ট করে সেতুর পাড়ে গাড়ী বন্ধ করে মাথায় তুলে ধান পারাপার করেন। স্হানীয় বাসিন্দা ঠাকুরভোগ গ্রামের মানিক মিয়া জানান, অনেক আশা ছিল এই ব্রীজ দিয়ে চলাফেরা করার কিন্তু ব্রীজের পাশে রাস্তা না থাকায় বৃথা গেল আমাদের আশা-ভরসা। আজ প্রায় এক বছর হয়েগেল সেতু নির্মাণ হলে ও রাস্তা নির্মান হয়নি। স্হানীয় বাসিন্দা মাওলানা রায়হান খাঁন জানান, সেতু নির্মাণ হয়ে আমাদের কোন কাজ হলো না রাস্তা না থাকায়। নির্মাণের আগে যেভাবে কষ্ট করে চলতে হতো ঠিক সেই কষ্টই রয়ে গেল আমাদের। সমাজ-সেবক হেলিম মিয়া জানান, রাস্তার জন্য সেতুটাই অকেজো, রাস্তা না থাকায় মানুষজন মহা- বিপাকে আছেন। এব্যাপারে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার  প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ে ০৮৭১-৬২৫৬৩ ,একাধিক বার যোগাযোগ করলে ফোন রিসিভ করেনি

। এব্যাপারে পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম জানান- সেতুর নিচে মাটি ভরাটের কথা সম্পর্কে আমার জানা নেই। তবে সড়ক না থাকায় মানুষের কষ্ট হচ্ছে। আমি মন্ত্রী মহোদয়কে দাবী জানাবো জনস্বার্থে রাস্তা নির্মাণের জন্য।

 

 






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *