Main Menu

অপরাধের সাজা থেকে বাঁচতে গনমাধ্যমে অাশ্রয় নিচ্ছে

জয়নাল অাবদীন রনি >>

সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা। এখানে গুণ্ডামি, মাস্তানি কখনো কাম্য নয়। আজকের সাংবাদিকতা মানেই গুণ্ডামি, অভদ্র আচরণ, টাকাকড়ি লোভী ও অপরাধী হয়ে পিঠে মাইর না খাওয়ার জন্য আশ্রয় স্থান হিসেবে ব্যবহার করতেছেন কিছু অসাধু সাংবাদিকরা। এইগুলো খুবই দুঃখজনক।

 

এই পেশায় সম্মানের পাশাপাশি আছে রোমাঞ্চ। রয়েছে ভালোলাগা, ভালোবাসা সর্বোপরি একটি স্বাধীনতা। সাংবাদিকতা কোন সাধারণ পেশা নয়। এই পেশায় যেমন রয়েছে অধিক সম্মান তেমনী রয়েছে জীবনের মারাত্মক ঝূঁকি। এই পেশাটা হচ্ছে দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কিছু করার জন্য উপযুক্ত পেশা।

 

আমার মনে হয়, একজন চিকিৎসক যেভাবে মানুষের সেবা করতে পারেন তার চেয়ে অনেক বেশি সেবা করতে পারেন একজন দেশপ্রেমিক সাংবাদিক। কিন্তু জীবনের ঝূঁকি নিয়েই সাংবাদিকরা সমাজের অন্যায়, অভিচার, অনিয়ময়, দূর্নীতির চিত্র তুলে ধরেন গণমাধ্যমের কর্মীরা।

 

যখনই একজন অপরাধীর ঘৃন্য কর্মকান্ড গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয় তখনই প্রতিবেদক হুমকির শিকার হন। যেমনটি বেশ কম  সাংবাদিকের ক্ষেত্রে হয়ে থাকে।

 

সাংবাদিকরা সকল অপশক্তিকে মোকাবেলা করেই দেশ ও জাতির জন্য কাজ করতে হয়। জনগন রাষ্ট্র ও গণমাধ্যম একে অপরের অঙ্গ। গণমাধ্যম ছাড়া কোন রাষ্ট্র স্ব-নীতির উপর দাঁড়িয়ে থাকতে পারেন না। আর এখন নিজের পকেট ভারী করার জন্য এই মহান পেশাকে পুঁজি হিসেবে ব্যবহার করতেছে। (দুঃখজনক)

 

ছোট বেলা থেকেই অধিকার বঞ্চিত ছিলাম নিষ্ঠুর সমাজপতিদের কাছে আমরা গোটা পরিবার। নিজের দিকে, নিজের পরিবারের দিকে ও অধিকার বঞ্চিতা মানুষের দিকে যখন তাকাতাম তখন মনের মধ্যে একটি প্রশ্ন জাগতো কিভাবে তাদের অধিকার পাওয়া যাবে…? ঠিক তখন থেকেই জানতে পারলাম গণমাধ্যমের মাধ্যমে মানুষের অধিকার আদায়ে ভূমিকা রাখা সম্ভব। এই মহান পেশার সম্পর্কিত আর কিছু বলবনা। বাদ দিলাম। মূল কথায় আসতেছি…..

 

শুধু এইটুকু বলবো, সাংবাদিকতা কোন চাকরি কিংবা পেশা নয়, এটি এক ধরনের ভালোলাগা এক নেশা।

কিন্তু দূঃখজনক হইলেও সত্যি বর্তমান সময়ে আমাদের সমাজে অপসাংবাদিক, হলুদ সাংবাদিক, মহামারি ও অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজের মত অপরাধ মুলোক কর্মকান্ড আমরা প্রায় দেখতে হচ্ছে। বিষয়গুলো খুব দুঃখজনক।

 

আজকে সোনাগাজীর কেন্দ্রিক সাংবাদিকদের পি.টি.আই. গেইটের সামনের এই রকম রুপ আমি কখনো আশা করি নাই, বিষয়টা খুবই কষ্টকর ও দূঃখজনক। তাই, যেকোনো মুল্যে সোনাগাজীসহ ফেনী জেলার সকল সাংবাদিকদের বিবাদহীন চাই, করতে হবে।

জয় বাংলা,  জয় বঙ্গবন্ধু।

লেখক -সাহিত্য সম্পাদক,  ফেনী জেলা ছাত্রলীগ।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *