Main Menu

জঙ্গীবাদ নির্মুলে গণস্বাক্ষর : অংশ নিলেন আলাউদ্দিন নাসিম ও নিজাম হাজারীসহ বিশিষ্টজনরা

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

ফেনীতে শুরু হওয়া ৬ দিনব্যাপি ‘গণস্বাক্ষর ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী’র তৃতীয় দিনেও সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক টিভি অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচীর তত্বাবধানে ফেনী ইউনিভার্সিটির ‘নবীন বরণ অনুষ্ঠানে গনস্বাক্ষর কার্যক্রমে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক প্রটোকল অফিসার ও ফেনী ইউনিভার্সিটি ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম, ফেনী ২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী, ফেনী ইউনির্ভাসিটির ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো: সাইফুদ্দিন শাহ, ইউনিভার্সিটির কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর তায়বুল হক, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের চেয়ারম্যান এ কে এম সাহিদ রেজা শিমুল, শিক্ষাবিদ ড. মির্জা আতাউর রহমান, কমন্ডার জসিম উদ্দিন (অব.) ড. তবারক উল্যাহ বায়েজিদ, পরশুরাম উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার, দাগনভূঞা উপজেলা চেয়ারম্যান দিদারু কবির রতন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খায়রুল বাশার তপন, আনন্দপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুন মজুমদার ও জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক জাবেদ হায়দার জর্জ, ফেনী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তোয়ায়েল আহমেদ তপুসহ স্থানীয় রাজনীতিবিদ, শিক্ষাবিদসহ বিশিষ্টজনরা।

 

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবীন বরণে অনুষ্ঠানে গণস্বাক্ষর কার্যক্রমে অংশ নেন উপস্থিত শিক্ষক, শিক্ষার্থী, সাংবাদিকসহ নানা শ্রেণি পেশার মানুষ। স্বাক্ষর গ্রহণকালে এ কার্যক্রমকে স্বাগত জানায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবীন শিক্ষার্থীরা। প্রচুর উৎসাহ-উদ্দিীপনার মধ্য দিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটিতে শেষ হয়ে সেখান থেকে ছাগলনাইয়া চলে যায় ‘গনস্বাক্ষর’ টিম।

 

ছাগলনাইয়া পৌরসভা কার্যালয়ে ফের এ অভিযান শুরু হয়। সেখান প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা ছাগলনাইয়ার কৃতি সন্তান ফয়েজ আহমেদের কুলখানিতে আগত অতিথির মাঝে  ‘গণস্বাক্ষর ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী’ বিষয়ক লিপলেট বিতরণ, বই বিতরণ এর মধ্য দিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়। সেখানে অংশ নেন ফেনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র আশরাফুল আলম গীটার, জেলা আওয়ামীলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আবু সুফিয়ান, মেয়র মো: মোস্তফা, উপজেলার ছাত্র-ছাত্রী, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, শিক্ষক শিক্ষার্থী, সচেতন সাধারণ মানুষসহ প্রচুর মানুষ উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে গণস্বাক্ষর বইতে স্বাক্ষর করেন। পরে সেখান থেকে ফেনী রাজাঝির দিঘীর পাড় এলাকায় গনস্বাক্ষর কার্যক্রম পরিচালিত হয়। সেখানে এ কার্যক্রমে অংশ নেন নানা শ্রেণি পেশার মানুষ।

 

এদিকে রাজাঝির দিঘীর থেকে শেষ হয়ে ফেনী সদর উপজেলার বালিগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে পিঠা উৎসবে এ কার্যক্রম শুরু হয়। এ সময় উপজেলার শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ নানা শেণি পেশার মানুষ অংশ নেন। পরে সন্ধ্যায় ফেনী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘চলচ্চিত্র প্রদর্শনী’তে ছিল উপচেপড়া ভিড়।

 

সম্পাদনা / সৈয়দ মনির।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *