Main Menu

প্রিয় নবী (দঃ) এর আদর্শই মুক্তির একমাত্র উপায় -অধ্যক্ষ ছৈয়্যদ মুনির উল্লাহ্

 

মোহাম্মদ আলাউদ্দীন :

ইহকাল ও পরকালে যত কল্যাণ নিহিত সবই আল্লাহ তা’আলা তাঁর হাবীব (দঃ) এর জীবনে দান করেছেন। প্রিয় নবী (দঃ) যা করতে বলেছেন তা করার মধ্যে কল্যাণ এবং যা থেকে নিষেধ করেছেন তা ত্যাগ করাটা কল্যাণ। যে ব্যক্তি আল্লাহর পুরস্কারের আশা রাখে পরকালের মুক্তি চায় এবং আল্লাহকে অনেক বেশি স্মরণ করতে চায় তার জন্য সর্বোত্তম আদর্শ হলেন মুহাম্মদুর রাসুলুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামা। যিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ আদর্শ, যার সংবিধান হলো মহাগ্রন্থ আল কোরআন। যাঁর (দঃ) শিক্ষক ছিলেন একমাত্র আল্লাহ তা’আলা। তাই প্রিয় নবী (দঃ) এর আদর্শই মুক্তির একমাত্র উপায়।

গতকাল ১২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার চট্টগ্রামের রাউজান চিকদাইর হক সাহেব জামে মসজিদ সম্মুখস্থ ময়দানে অনুষ্ঠিত এশায়াত মাহফিলে কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফের মহান মোর্শেদ আওলাদে রাসূল হযরতুলহাজ্ব আল্লামা অধ্যক্ষ শায়খ ছৈয়্যদ মুহাম্মদ মুনির উল্লাহ্ আহমদী মাদ্দাজিল্লুহুল আলী এসব কথা বলেন। উপস্থিত শত শত আলেম, যুবক, ব্যবসায়ী, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি ও সর্বস্তরের হাজার হাজার নবীপ্রেমিক মুসলমানের উদ্দেশ্যে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

তিনি আরও বলেন, এ আদর্শ বাস্তবায়ন করার জন্য আজীবন আধ্যাত্মিক সংগ্রাম করে গেছেন হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আনহু। প্রিয় নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামার আদর্শকে পূঁজি করে তিনি দ্বীনের এশায়াত করে গেছেন, তবলীগ করেছেন। এ দেশের যুব সমাজকে সঠিক পথের দিকে আহবান করেছেন। প্রিয় নবী (দঃ)’র সুন্নাত যুবকদের মাঝে পুনঃজীবিত করার জন্য নিজের স্বর্বস্ব বিলিয়ে দিয়েছেন। যিনি গঠন করেছেন মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ, প্রতিষ্ঠা করেছেন কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফ। তিনি যুবকদেরকে দিয়েছেন তাহাজ্জুদ, জিকরের শিক্ষা, দিয়েছেন দৈনিক ১১১১ বার নবী (দঃ) এর উপর দরূদ পাঠের দীক্ষা। যিনি যুবকদেরকে অভ্যস্ত করে তুলেছেন আযান হলে মসজিদে গমনের, তাসবীহ হাতে নিয়ে জায়নামাজে বসে থাকার।

কাগতিয়া দরবারের প্রতিষ্ঠাতা খলিলুল্লাহ আওলাদে মোস্তফা খলিফায়ে রাসূল হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম (রাঃ) স্মরণে এ মাহফিলের আয়োজন করে মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ ১০৪নং চিকদাইর শাখা।

চবি ইসলামের ইতিহাস বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তৌহিদ হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে মাহফিলে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন সভাপতি প্রফেসর ড. আবুল মনছুর, অধ্যাপক মুহাম্মদ তসলিম, উদ্দীন, পদ্মা অয়েল কোম্পানী চট্টগ্রামের ডেপুটি ম্যানেজার সাইফুদ্দীন আহমদ, ডা. মুহাম্মদ আসিফুল আলম।

অন্যান্যদের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ ওলামা পরিষদের সভাপতি হযরতুলহাজ¦ আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ ইব্রাহিম হানফী, সচিব আল্লামা মুফতি কাজী মুহাম্মদ আনোয়ারুল আলম ছিদ্দিকী, সংগঠনের ওলামা পরিষদের সহ-এশায়াত সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ ফোরকান, মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুস ছালাম প্রমুখ।

মিলাদ ও কিয়াম শেষে প্রধান অতিথি দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দরবারের প্রতিষ্ঠাতা গাউছুল আজম (রাঃ) ফুয়ুজাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত করেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *