Main Menu

বোমা বানাতে গিয়ে লিঙ্গ ও দুহাত উড়ে গেল শিবির নেতা রাব্বি মিয়ার- বাংলারদর্পন !

বাংলারদর্পন ডেস্ক :

ঘরে বসে বোমা তৈরী করাটা একটা ভয়ঙ্কর অপরাধ। বিপুল পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে নাশকতার উদ্দেশ্যে দলের নেতা কর্মীরা এই ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করে। সার তৈরীতে আমদানিকৃত রক সালফার, পটাশিয়াম পারম্যাঙ্গানেটসহ বিভিন্ন রাসায়নকি উপাদান সংগ্রহ করে দুর্বৃত্তরা। এভাবে হাতে তৈরী করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় হাতের কব্জিসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ উড়ে যাওয়ার ঘটনা যেমন শোনা যায়, তেমনি বোমার আঘাতে কারিগর নিজেও উড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটে।

সম্প্রতি বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার উত্তর দেহেরগতি গ্রামে হাত বোমা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণে লিঙ্গ উড়ে গেছে রাব্বি মিয়া (২১) নামের এক শিবির নেতার। একই সাথে হাতের দুটি আঙ্গুলও উড়ে গেছে ঐ যুবকের। আহত রাব্বি জামায়াতে ইসলামীর ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্র শিবিরের উপজেলা পর্যায়ের নেতা। তার নামে বেশ কয়েকটি নাশকতার মামলা রয়েছে বলে জানা যায়।

গত শুক্রবার এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়। ঘটনার একদিন পর শনিবার রাতে জামায়াতের স্থানীয় নেতাদের তত্ত্বাবধানে আত্মগোপনে থেকে চিকিৎসা নেয়া অবস্থায় গুরুতর আহত রাব্বিকে আটক করেছে পুলিশ।

বাবুগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সালাম জানান, উত্তর দেহেরগতি গ্রামের নাসিম মিয়ার পুত্র রাব্বি মিয়া শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) বিকেলে নাশকতার উদ্দেশ্যে বেশ কিছু ভয়ঙ্কর হাত বোমা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণে গুরুতর আহত হয়। আহত রাব্বি গোপনে স্থানীয় রহমতপুর বাজারের চিকিৎসক আব্দুল হান্নান এবং জামায়াত পন্থী আরেকজন চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে আত্মগোপনে থেকে চিকিৎসা করাচ্ছিলো। স্থানীয় শিবিরের কয়েকজন কর্মী তার জন্য রক্তদানও করেছে বলে জানা গেছে।

বিস্ফোরণের ঘটনাটি তদন্ত করতে গিয়ে বিষয়টি পুলিশ জানতে পারে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাতে গোপন আস্তানা থেকে রাব্বিকে আটক করেছে। এ ঘটনায় ওইদিন রাতে থানায় বিস্ফোরক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *