Main Menu

গুলশান হামলায় অস্ত্র সরবরাহকারীরা গ্রেফতার

 

দর্পন ডেস্কঃ আপডেট: নভেম্বর ০৩, ২০১৬।

জেএমবি’র চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ডিএমপি’র কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। ০২ নভেম্বর রাত ২১.০০টায় রাজধানীর দারুসসালাম থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হল- মোঃ আবু তাহের (৩৭) , মিজানুর রহমান (৩৪), মোঃ সেলিম মিয়া (৪৫) ও তৌফিকুল ইসলাম @ ডাঃ তৌফিক (৩২)। এ সময় তাদের হেফাজত থেকে হ্যান্ডমেড গ্রেনেড তৈরীর মূল উপকরণ ৭৮৭টি ডেটোনেটর ও একটি ৯ এমএম বিদেশী পিস্তল উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃতরা সকলেই জেএমবি’র সক্রিয় সদস্য ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ থানার ভারতীয় সীমান্তে অস্ত্র ও বিস্ফোরক চোরাচালানের সাথে জড়িত। সাম্প্রতিক সময়ে নব্য জেএমবি’র দেশব্যাপী হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত গ্রেনেড তৈরীর মূল উপকরণ ডেটোনেটর, জেল ও অস্ত্র গ্রেফতারকৃতরা ভারতীয় সীমান্ত হতে চোরাচালানের মাধ্যমে নিয়ে আসত। এই বিস্ফোরক ও অস্ত্র সংগ্রহের অন্যতম প্রধান চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলাকার জেএমবি’র বর্তমান দায়িত্বশীল মিজানুর রহমান @ বড় মিজান ও মিজানুর রহমান।

ধারণা করা হচ্ছে ঢাকায় নতুন করে কোন নাশকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে গ্রেফতারকৃতরা জেএমবি’র বর্তমান নের্তৃত্বের নির্দেশ ও পরামর্শ মোতাবেক এই ডেটোনেটর ও অস্ত্র নিয়ে ঢাকায় আসে।

গুলশান হামলায় ব্যবহৃত গ্রেনেড তৈরীর কাঁচামাল ও হ্যান্ডগান (পিস্তল) সহ অন্যান্য অস্ত্রগুলো চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্ত হতে গ্রেফতারকৃতদের মাধ্যমে সংগ্রহ করে ছোট মিজান @ তারা গুলশান হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী তামিম চৌধুরী ও মারজানের কাছে পৌঁছে দেয় বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *