Main Menu

জাতিসংঘে দুটি পুরস্কার পাচ্ছেন শেখ হাসিনা- banglardarpan.com

 

বাংলার দর্পন ডটকম >>>> আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে জাতিসংঘের ৭২তম অধিবেশন শুরু হচ্ছে। ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে সাধারণ বিতর্ক। এবারের জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভায় অনন্য অবদানের জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুটি আন্তর্জাতিক সম্মানে ভূষিত হতে যাচ্ছেন। এনিয়ে পরপর তিনবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে পুরস্কৃত হলেন শেখ হাসিনা। পৃথিবীর কোনো সরকার বা রাষ্ট্রপ্রধানের এই কৃতিত্ব নেই। এবারের সাধারণ পরিষদ অধিবেশনের মূল প্রতিপাদ্য হলো, ‘জনগণের ওপর আলোকপাত: বিশ্বে সবার জন্য শান্তি এবং সম্মানজনক জীবন’। এবারের মূল প্রতিপাদ্যের যে বিষয়গুলোর ওপর নজর দেওয়া হবে, সেগুলো হলো, শিক্ষা, জলবায়ু এবং সামাজিক উন্নয়ন। এর মধ্যে শিক্ষা এবং সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে অনন্য অবদানের জন্য জাতিসংঘ পুরস্কার পাচ্ছেন শেখ হাসিনা।

শিক্ষায় বৈষম্য হ্রাস, নারী শিক্ষার হার উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি, অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষা এবং শিক্ষার হার বৃদ্ধিতে অবদানের জন্য শেখ হাসিনাকে সম্মাননা স্বীকৃতি দেওয়া হবে। এর আগেও তিনি শিক্ষার জন্য ইউনেসকো পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন। জাতিসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নারী শিক্ষাকে অবৈতনিক করা, শিক্ষা কার্যক্রমে নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দৃষ্টান্তমূলক অবদান রেখেছেন, যা অনুকরণীয়। এছাড়াও শেখ হাসিনাকে সামাজিক উন্নয়নে উদ্ভাবনী কর্মসূচি গ্রহণের জন্য আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেওয়া হবে, এবারের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে। সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীতে বাংলাদেশে ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্প সহ আশ্রায়ন, বিধবা ভাতার মতো কর্মসূচি গুলোকে জাতিসংঘ রোল মডেল কর্মসূচি হিসেবে চিহ্নিত করেছে। বলা হয়ছে, একটি নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ যেভাবে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী গড়ে তুলেছে, তা বিশ্বে একটি মডেল। এর মাধ্যমে দরিদ্র হ্রাস হয়েছে এবং বৈষম্য কমেছে। এই সব সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির উদ্ভাবক বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই উদ্ভাবনী কর্মসূচির জন্য জাতিসংঘ পুরস্কারের জন্য তাঁকে মনোনীত করা হয়েছে।

১৯ সেপ্টেম্বর সাধারণ পরিষদের অধিবেশন শুরুর পরপরই জাতিসংঘ আনুষ্ঠানিকভাবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য জাতিসংঘের পুরস্কার ও স্বীকৃতি প্রাপ্ত ব্যক্তি ও দেশের নাম ঘোষণা করবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে যাবেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *