Main Menu

ওই রাতে আপত্তিকর কিছু ঘটেনি: রেইনট্রি কর্তৃপক্ষ

ঢাকা: রাজধানীর বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের দিন ওই রাতে আপত্তিকর কোনও কিছু ঘটেনি বলে দাবি করেছেন দ্যা রেইনট্রি হোটেল কর্তৃপক্ষ। তারা বলছেন, ঘটনার রাতে হোটেলের স্ক্যানার মেশিন অকার্যকর থাকায় কোনও ব্যক্তি মদ নিয়ে হোটেলে ঢুকেছিলো কি না তা শনাক্ত করা সম্ভব হয় নি।

শনিবার হোটেলের জেনারেল ম্যানেজার ও ইন্টার্নাল অপারেশন এক্সিকিউটিভ ফারজান আরা রিমি এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

ঘটনার দিনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেদিন (২৮ মার্চ) অস্ত্র ফ্রন্ট ডেস্কে জমা দিয়ে হোটেলে প্রবেশ করেছিল সাফাত, সাদমান ও নাঈমরা। ফলে ধর্ষণের শিকার দুই তরুণী অস্ত্রের মুখে ধর্ষণের যে অভিযোগ করেছেন, তা মিথ্যা।

“রেইনট্রি হোটেলের প্রতিটি রুম সাউন্ডপ্রুফ। রুমের মধ্যে যদি কেউ চিৎকার করলেও তো বাইরে থেকে শোনার উপায় নেই।”

শনিবার সকালে তদন্ত করতে সেখানে যায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। এছাড়াও মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ওই হোটেলে অভিযান চালায়।

গত ২৮ মার্চ বনানীতে দ্য রেইনট্রি হোটেলে বন্ধুর মাধ্যমে এক জন্মদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী। এরপর ধর্ষকরা ওই ঘটনার ভিডিও ধারণ করে রাখে।

প্রাণনাশসহ বিভিন্ন হুমকি উপেক্ষা করে ঘটনার একমাসের বেশি দিন পর ওই দুই তরুণী ৪ মে বনানী থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করতে যান। তবে থানা পুলিশ মামলা না নিয়ে তাদেরকে হয়রানী করে বলে অভিযোগ ওঠার ৪৮ ঘণ্টা পর ৬ মে ওই অভিযোগ লিপিবদ্ধ করে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *