Main Menu

যুক্তরাষ্ট্রে এক তৃতীয়াংশ অঙ্গরাজ্যে ওমিক্রনের হানা

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,যুক্তরাষ্ট্র :
যুক্তরাষ্ট্রের আরও তিনটি অঙ্গরাজ্যে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটির ১৬টি অঙ্গরাজ্যে কোভিড-১৯ এর নতুন ধরনটি শনাক্ত হলো। খবর রয়টার্সের।

নতুন করে যে তিনটি অঙ্গরাজ্যে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে সেগুলো হলো উইসকনসিন, লুইজিয়ানা ও মিসৌরি।

এর আগে মেরিল্যান্ড, পেনসিলভানিয়া, নিউইয়র্ক, কলোরাডো, মিনেসোটা, ক্যালিফোর্নিয়া, কানেকটিকাট, হাওয়াই, নেব্রাস্কা, ম্যাসাসুসেটস, ওয়াশিংটন, উটাহ ও নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যে ওমিক্রন শনাক্ত হয়।

নভেম্বরের শেষ দিকে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হওয়ার পর মাত্র অল্প কয়েকদিনেই বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে ওমিক্রন। এখন পর্যন্ত পাওয়া খবরে বিশ্বের ৪০টিরও মতো দেশ করোনাভাইরাসের নতুন ধরনটি শনাক্তের খবর এসেছে।

ভ্যারিয়েন্টটির জিন বিন্যাসের পরিবর্তন বা মিউটেশনের সংখ্যা অনেক বেশি হলেও এটি অন্য ভ্যারিয়েন্টগুলোর তুলনায় বেশি সংক্রামক কিনা এবং ভ্যাকসিনের সুরক্ষা এড়িয়ে যেতে সক্ষম কিনা তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

আফ্রিকার বেশ কয়েকটি দেশ, ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য এবং ভারতের পর অস্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করোনা ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের এক তৃতীয়াংশ অঙ্গরাজ্যে ওমিক্রন শনাক্ত করা হয়েছে। তবে তাদের মধ্যে কারো অবস্থাই গুরুতর নয়।

বিশ্বে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রভাব শেষ না হতেই ওমিক্রনের প্রাদুর্ভাবে করোনা পরিস্থিতি আরও জটিল হতে পারে এমন আশঙ্কা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের পরিচালক রচেল ওয়ালেনস্কি।

করোনাভাইরাসের নতুন ধরনটি শনাক্তের পরপরই দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন করোনাভাইরাস-সংক্রান্ত কঠোর ভ্রমণবিধি জারি করেছেন।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী আগামী সপ্তাহ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার আগে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করতে হবে। তবে যারা সদ্যই কোভিড থেকে সেরে উঠেছেন তারা ‘রোগমুক্তির প্রমাণপত্র’ দেখিয়ে পার পেতে পারবেন। বিমান, ট্রেন এবং বাসে চড়ার ক্ষেত্রে মাস্ক পরার নিয়ম চালু রাখা হবে মার্চের মাঝামাঝি পর্যন্ত।

যুক্তরাষ্ট্রে ওমিক্রনের বিস্তার ঠেকাতে নেওয়া বিধিনিষেধের মধ্যে কোভিড পরীক্ষার ওপরই বেশি জোর দেওয়া হয়েছে। ‘শাটডাউন’ বা ‘লকডাউন’ এর মতো কোনও পদক্ষেপ এখনও নেওয়া হয়নি।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *