Main Menu

সেনবাগে ৫জনকে অচেতন করে স্বর্ণালঙ্কার ও টাকা লুট

নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় রাতের খাবারের সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে একই বাড়ীর ৪টি পরিবারের নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কারসহ মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

অচেতন হওয়া ব্যক্তিরা হলেন, মহিন উদ্দিন, তার স্ত্রী রিনা আক্তার, আবদুর রহিম, মাহী ও খোরশেদ আলম।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) সকালে অচেতন হওয়া ব্যক্তিদের উদ্ধার করে সোনাইমুড়ী দি ল্যাব হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম ছাতারপাইয়া গ্রামের তিনা বাড়ী ওরফে মালেক এজেন্সেীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, তিনা বাড়ীর ৪টি পরিবারের সদস্য রাতের খারাব খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। সকালে তারা ঘুম থেকে না ওঠায় বাড়ীর অপর সদস্যরা ডাকাডাকি করে কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে তাদেরকে উদ্ধার করে সোনাইমুড়ী দি ল্যাব হাসপাতালে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে বুধবার দুপুরে সেনবাগ থানার পুলিশ ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ছাতারপাইয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুর রহমান জানান, দুর্বৃত্তরা রাতের খাবারের সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে নগদ ৩০ হাজার টাকা, ২টি স্বর্ণের চেইন, ২ জোড়া স্বর্ণের কানের দুল সহ মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী জানান, ফুড প্রয়জনিং থেকে একই বাড়ীর ৪টি পরিবারের ৫জন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তবে স্বর্ণালঙ্কাকার, টাকা সহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুটের কোন ঘটনা ঘটেনি বলে তিনি দাবি করেন।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *