Main Menu

রোহিঙ্গা নাগরিককে মারধরের অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার ভাসানচর রোহিঙ্গা আশ্রয়ন কেন্দ্রে দুই রোহিঙ্গা নাগরিক ও তাদের স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা (এনএসআই) এর সদস্যদের বিরুদ্ধে।

মারধরের শিকার নাজমুল হাসান (২১) ভাসানচর আশ্রয়ন কেন্দ্রের ৪৭ নং ক্লাস্টারের  আবুল হোসেনের ছেলে ও একই ক্লাস্টারের নুর আলমের ছেলে মো.নয়ন (২৮)।

গত সোমবার (১ নভেম্বর) রাত ২টার দিকে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ভাসানচর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত রোববার (৩১ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে রোহিঙ্গা নাগরিক নাজমুল হাসান ও মো.নয়নকে ভাসানচর আশ্রয়ন কেন্দ্রের-৪৭ নং ক্লাস্টারের রুম নং-এফ/৬ থেকে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা (এনএসআই) এর এডি আবির, ফিল্ড অফিসার আশিকুল, ফিল্ড অফিসার জাহাঙ্গীর, জুনিয়র ফিল্ড অফিসার হৃদয়,ফিল্ড স্টাফ ফরহাদ, ফিল্ড স্টাফ সুমন ও ফিল্ড স্টাফ মান্নান ৪ টি মোটর সাইকেল যোগে নিজ ক্লাস্টার থেকে ধরে নিয়ে ৩৩নং খালি ক্লাস্টারে নিয়ে যায়। সেখানে এনএসআই সদস্যরা ২ রোহিঙ্গাকে লোহার রড ও লাঠিসোঠা দিয়ে পিঠিয়ে জখম করে।

 

এ সময় তাদেরকে জিজ্ঞাসা করে এপিবিএন ও থানাকে মাসে কত টাকা চাঁদা দেস, স্বীকার কর না হলে জানে মেরে ফেলবো বলে হুমকি দেয়। খবর পেয়ে কিছুক্ষণ পর তাদের স্ত্রীরা সেখানে গেলে তাদেরকেও মারধর করে এবং অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে।

 

পরবর্তীতে আহত রোহিঙ্গাদের রাত সাড়ে ১০টার দিকে ছেড়ে দেয়। এরপর আহত দুই রোহিঙ্গা ২০ শয্যা বিশিষ্ট ভাসানচর হাসপাতালে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়। এ ঘটনার বিচার চেয়ে তাৎক্ষণিক ২ শতাধিক রোহিঙ্গা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করে।

নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, ভুক্তভোগীদের অভিযোগ শুনে ভাসানচরে (এনএসআই) এর দায়িত্ব প্রাপ্ত উর্ধ্বতন কর্মকর্তা তাদেরকে সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিলে তারা নিজ নিজ ক্লাস্টার এ চলে যায়।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *