Main Menu

ইসলাম ধর্মকে কটাক্ষের অভিযোগে সুনামগঞ্জে ফের হিন্দু যুবক গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্ট:
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ইসলাম ধর্মকে নিয়ে কটাক্ষ করে পোষ্ট দেয়ায় অসিত বরণ দাস (১৯) নামে ফের এক হিন্দু ধর্মালম্বী যুবককে সুনামগঞ্জের শাল্লায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

শুক্রবার শাল্লায় থানায় ডিজিটাল নিরাপক্তা আইনে মামলা দায়ের পূর্বক তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। অসিত বরণ শাল্লার আটগাঁও ইউনিয়নের দাউদপুর গ্রামের বিধু বরণ দাসের ছেলে।

শুক্রবার দিবাগত রাতে শাল্লা থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম গ্রেফতার যুবককে কারাগারে পাঠানোর তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলা সুত্রে জানা যায়, শাল্লার দাউদপুর গ্রামের হিন্দু ধর্মালম্বী যুবক অসিত বরণ দাস সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের আইডিতে ইসলাম ধর্মকে নিয়ে কটাক্ষ্য করে আপত্তিকর লেখা পোস্ট করেন। এ বিষয়টি আইনশৃংখলা বাহিনীর নজরে আসার পর ওই উপজেলায় উত্তেজনা ও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতেই তাকে গ্রেফতারে সাঁড়াশি অভিযানে নামে দিরাই ও শাল্লা থানা পুলিশের যৌথ টিম।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আবু সুফিয়ানের নেতৃত্বে পুলিশী অভিযানে শাল্লার দাউদপুর বাজার এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার রাতেই অসিতকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এরপর শুক্রবার শাল্লা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত ও ডিজিটাল নিরাপক্তা আইনে মামলা দায়ের করে।,
প্রসঙ্গত, শাল্লার নোয়াগাঁও গ্রামের হিন্দু (সনাতন) ধর্মালম্বী যুবক ঝুমন দাস আপন হেফাজতে ইসলামের তৎকালণি যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হককে কটূক্তি করে নিজের ফেসবুকে আইডিতে স্ট্যাটাস দেয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে চলতি বছরের গত ১৭ মার্চ সকালে নোয়াগাঁও গ্রামের হিন্দুপল্লীতে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়ে একাধিক বসতঘর ও একাধিক পারিবারিক মন্দির ক্ষতিগ্রস্থ করা হয়।

এ ঘটনার পুর্বেই ডিজিটাল নিরাপক্তা আইনে অভিযুক্ত ঝুমন দাস আপনের বিরুদ্ধে পুলিশ গ্রেফতার পূর্বক আইনি ব্যবস্থা নেয়ার পর উস্কানীমূলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে দুবৃক্তরা তাগুব চালায় নোয়াগাঁও গ্রামে।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *