Main Menu

চৌমুহনীতে সাম্প্রদায়িক হামলার দায় এড়াতে পারে না রাজনৈতিক নেতারা

নোয়াখালী প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর চৌমুহনীতে সাম্প্রদায়িক হামলার দায় রাজনৈতিক নেতারা এড়িয়ে যেতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশার এমপি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নোয়াখালী সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে নোয়াখালীর সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে ১৪ দলের কেন্দ্রিয় নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিয়ম সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

এ সময় তিনি বলেন, চৌমুহনীতে মন্দিরে হামলা ভাংচুরের মধ্য দিয়ে বুঝা গেলে দেশে সাম্প্রদায়িক উদ্রবাদি শক্তির বিকাশ ঘটছে। দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃস্টির জন্য তারা বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালাচ্ছে।

তৃণমূল পর্যায়ে ১৪ দল এবং মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করা না গেলে এই সাম্প্রদায়িক শক্তিকে প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মতবিনিময় সভায় ১৪ দল নেতৃবৃন্দ চৌমুহনীতে সাম্প্রদায়িক হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের আগামীকাল থেকে প্রয়োজনীয় খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার পাশাপাশি প্রশাসনিকভাবে তাদেরকে পূর্ণ নিরাপত্তা দেওয়ার দাবি জানান।

নোয়াখালী সার্কিট হাউজে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি, ওয়াকার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য মোস্তফা লুৎফুল্লা এমপি, জাসদের যুগ্ম সম্পাদক মো: মহসীন, জেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক খায়রুল আনম সেলিম, যুগ্ম আহবায়ক শহিদ উল্লাহ খান সহ হিন্দু ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে দুপুরে ১৪ দল নেতৃবৃন্দ নোয়াখালীর চৌমুহনীতে ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির পরিদর্শন করেন। এ সময় তারা হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের খোঁজ খবর নেন।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *