Main Menu

কুড়িগ্রামে কিশোরী অপহরণের প্রায় সাড়ে ৯ মাস পর উদ্ধার

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের উলিপুরে অপহরণের প্রায় সাড়ে ৯ মাস পর অপহৃত এক স্কুল ছাত্রি (১৫) কে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। বুধবার (২৮ জুলাই) সকালে নীলফামারী সদর উপজেলার পোষ্ট অফিস মোড় এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় অভিযুক্ত রায়হান মিয়াকে আটক করে বুধবার দুপুরে কুড়িগ্রাম জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়।

পুলিশ ও ভুক্তভোগি পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১৬ অক্টোবর উপজেলার বজরা ইউনিয়নের কালপানি বজরা এলাকার ওই কিশোরীকে অপহরণ করেন একই এলাকার কালপানি টিটমার এমদাদুল হকের পুত্র রায়হান মিয়া (৩২)। স্বজনরা অনেক খোঁজাখুজির পর সন্ধান না পেয়ে ওই কিশোরীর পিতা ফারুক হাসান বাদি হয়ে ১২ নভেম্বর উলিপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ রায়হানের পিতা এমদাদুল ও ভাই আকরাম হোসেনকে গ্রেফতার করে জেল-হাজতে পাঠান। আসামীরা জামিনে বেড়িয়ে আসলেও মূল অভিযুক্ত রায়হান ও ওই কিশোরীকে উদ্ধার করা সম্ভব হচ্ছিল না।

পরে পুলিশ অভিযুক্ত রায়হানের মুঠোফোনের অবস্থান (ট্র্যাকিং) জানার জন্য প্রযুক্তি ব্যবহার করেন। দীর্ঘ সাড়ে ৯ মাস পর অবস্থান শনাক্ত হওয়ায় নীলফামারী সদর উপজেলার পোষ্ট অফিস মোড় এলাকা থেকে রায়হানসহ ওই কিশোরীকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

এ বিষয়ে মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা (এস আই)আব্দুল বাতেন বলেন, প্রযুক্তির সাহায্যে আমরা তাদের অবস্থান শনাক্ত করতে সক্ষম হই। পরে নীলফামারী সদর থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাদের উদ্ধার করা হয়। আজ (বুধবার) দুপুরে রায়হাকে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ওই কিশোরী শারিরীক অসুস্থ্য থাকায় তাকে পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *