Main Menu

অভিনেতা সুশান্তকে হত্যা করেছে মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিম- বাংলারদর্পণ

প্রতিবেদক :
হতাশাগ্রস্ত হয়ে গত মাসে আত্মহত্যা করেন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। তার মৃত্যুকে ঘিরে শুরু হয় নানা আলোচনা-সমালোচনা। এখনও চলছে নানা ধরনের বিতর্ক-বিশ্লেষণ। তবে এখন পর্যন্ত তার মৃত্যুর কূলকিনারা বের হয়নি।

তবে তার মৃত্যু নিয়ে এবার চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এনেছেন ভারতের এক সাবেক গোয়েন্দা কর্মকর্তা। এন কে সুদ নামে ওই গোয়েন্দা কর্মকর্তার দাবি, সুশান্তের আত্মহত্যার ঘটনার সঙ্গে আন্ডারওয়ার্ল্ডের সম্পর্ক রয়েছে।

ইন্ডিয়ান সিকিউরিটি রিসার্স গ্রুপ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিওবার্তায় তিনি বলেন, সুশান্তের অপমৃত্যু আত্মহত্যা নয়, হত্যা। যার সঙ্গে দাউদ ইব্রাহিমের যোগসূত্র রয়েছে। ওই ভিডিওবার্তা থেকে খবরটি প্রকাশ করেছে বেশ কয়েকটি ভারতীয় গণমাধ্যম।

আরো পড়ুন >>>

রিজেন্ট শাহেদ এখন কোথায় -বাংলারদর্পণ

সুদের দাবি, ঘটনাটি নিখুঁতভাবে ছক কষে ঘটানো হয়েছে। ডন দাউদ ইব্রাহিম বর্তমানে মুম্বাইয়ে না থাকলেও তার প্রভাব আছে বলিউডে। পেশিশক্তি, অর্থ ও ক্ষমতার কারণে দাউদ এখনও মুম্বাইয়ের অপরাধজগতকে নিয়ন্ত্রণ করেন।

সাবেক এই গোয়েন্দা কর্মকর্তার মনে করেন, দাউদের কোনো প্রতিনিধির হাতে সুশান্তের খুন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এমনিতে গত কয়েক মাসে সুশান্তকে হুমকি দেয়া হচ্ছিল। এ জন্য তিনি অনেকবার সিমকার্ডও বদলেছিলেন। কেউ তাকে খুন করে ফেলতে পারে, এমন আশঙ্কায় ছিলেন সুশান্ত।

আরো পড়ুন >>>

রিজেন্ট শাহেদের সুন্দরী রক্ষিতা লিজা, সাদিয়া ও হিরা মণি- বাংলারদর্পণ

সুদ আরও বলেন, পেশাদারেরা সুশান্তকে খুন করেছে। তার যুক্তি, অভিনেতার মৃত্যুর আগের দিন সিসিটিভি ক্যামেরা বন্ধ করে দেয়া থেকে শুরু করে, ডুপ্লিকেট চাবি হারিয়ে যাওয়ার মতো অনেক তথ্যপ্রমাণ রয়েছে, তা দেখিয়ে দেয়, কেউ অত্যন্ত ঠাণ্ডা মাথায় সুশান্তের খুনের ছক কষেছে।

গত ১৪ জুন বান্দ্রার কার্টার রোডের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্তের ঝুলন্ত দেহ। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা কথা বলা হলেও সুশান্তের পরিবারের অভিযোগ, তাদের সন্তানকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *