Main Menu

ফেনী রামপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরনে অতিরিক্ত ফি আদায়

বাংলারদর্পন :

২০২০ সালের এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশ নিতে ফেনীর রামপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ফরম পূরণে চলছে অতিরিক ফি আদায় ।অভিভাবকদের অভিযোগ, নির্ধারিত বোর্ড ফি’র চেয়ে অতিরিক্ত টাকা আদায় করছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।কয়েকজন অভিবাবক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, রামপুর বালিকা বিদ্যালয়ে এস.এস.সি ফরম পূরণ বাবদ প্রতি পরীক্ষার্থী থেকে প্রায় ৬ হাজার টাকা করে নিচ্ছে। টাকা আদায়ের কোন রশিদ দেয়া হচ্ছে না।

এমনকি অতিরিক্ত টাকা আদায়ের কথা কাউকে বললে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেয়া হবে না বলে ছাত্রীদের সতর্ক করে দেয়া হয়।বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জহির উদ্দিন ইমতিয়াজ এ বিষয়ে কথা না বলতে শিক্ষার্থীদের ভয় দেখান তাতে শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা ক্ষুব্ধ।২০২০সালের এসএসসি পরীক্ষায় শিক্ষা বোর্ডের নির্ধারিত ফি বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এসএসসির ফরমপূরণ বাবদ সর্বোচ্চ ১ হাজার ৯৭০ টাকা, ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের পরীক্ষার্থীদের থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৮৫০ টাকা এবং মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৮৫০ টাকা ফি নিতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে বলেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড গুলো।

 

এছাড়া অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে পরীক্ষার্থী প্রতি ১০০ টাকা অনিয়মিত ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থীদের তালিকাভুক্তি ফি ১০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।কিন্তু বোর্ডের নির্দেশনা রামপুর বালিকা বিদ্যালয়ে মানা হচ্ছে না। তবে স্কুলের শিক্ষকরা বলছেন, কোচিং সেবা দেয়ার জন্য শিক্ষকদের জন্য কিছু টাকা ধরে ফি বাড়ানো হয়েছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অভিভাবক জানান, “তার বোন ফরম পূরণে বোর্ডের নির্ধারিত ফি এর চেয়ে ৪১৫০ টাকা অতিরিক্ত ফি জমা দিতে হয়েছে।সব মিলিয়ে প্রায় ৬০০০ টাকা নেয়া হয়েছে।”

 

পরীক্ষায় ক্ষতি হতে পারে এমন আশংকায় কোন অভিভাবক এর প্রতিবাদ করেনি। স্কুল কর্তৃপক্ষ পরিকল্পিত ভাবে এ অর্থ বাণিজ্য করেছেন। এমনকি পরীক্ষার্থীদের নিকট হতে ফরম পূরণের আদায়কৃত অর্থের কোন রসিদও দেওয়া হয়নি। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলেন,পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে বাড়তি অর্থ নেওয়ার কথা অস্বীকার করলেও পরে বলেন, স্কুলের উন্নয়নের জন্য অর্থ নেয়া হয়েছে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *