Main Menu

জমি লিখে না দেওয়ায় যুবক ও তার পরিবারকে হাতুড়ি পেটা করেছে ইউপি চেয়ারম্যান

 

 

নাজমুল হুদা, সাভার :

সাভারে জমি লিখে না দেওয়ায় শাহাবুদ্দিন শাহা (৩২) নামের এক যুবক ও তার পরিবারের সদস্যদের হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠিয়েছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগীরা। শনিবার রাত নয়টার দিকে সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের সামাইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এমনকি শুধু পিটিয়ে খান্ত হয়নি তারা হাতুড়ি দিয়ে হাত পা ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেওয়ার পর সাথে তার নিকট হতে অস্ত্র উদ্ধার দেখিয়ে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে এ যুবককে।

স্থানীয়রা এবং আহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের সামাইর গ্রামে প্রায় দুই বিঘা জমির উপর শাহাবুদ্দিন শাহার বসত বাড়ি। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ওই বাড়িতে বসবাস করেন তিনি। তবে দীর্ঘ দিন যাবৎ একই গ্রামের ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজন তাদের জমিতে মালিকানা দাবী করে আসছে। এমনকি বেশ কয়েকবার নাম মাত্র কিছু টাকা দিয়ে তাদের জমি লিখে নেওয়ার কথাও জানায় তারা। তবে বরাবরই জমি লিখে দিতে অস্বৃকীতি জানায় এ যুবকের পরিবার। এরই সুত্র ধরে শনিবার রাতে এশার নামাজ শেষে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় শাহাবুদ্দিন। আগে থেকে উৎপেতে থাকা চেয়ারম্যানের লোকজন তার পথের গতিরোধ করে তাকে উঠিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়িতে নিয়ে যায়। এসময় ওই যুবকের বৃদ্ধ বাবা শানু মিয়া ও মা উযুবা খাতুন বাধা দিলে সন্ত্রাসীরা তাদেরকেও পিটিয়ে  গুরুত্বর আহত করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় পরে এ যুবকরে হাত-পা বেধে পেটায় সন্ত্রাসীরা। এক পর্যায়ে শাহাবুদ্দিন শাহাকে বিব্রস্ত্র করে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে তার হাত ও পা ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়। পরে তার কাছ থেকে একটি অস্ত্র পাওয়া গেছে দেখিয়ে পুলিশে খবর দেয়া হয়। খবর পেয়ে সাভার মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ওই যুবককে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে ভর্তি করে। আহত শাহাবুদ্দিনের বড় ভাই শাহাজাহান মিয়া অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ দিন যাবৎ বিরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজন ও তার বড় ভাই একাধিক মামলার আসামী তাদের জমি দখল করে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার পায়তারা করে আসছেন। এছাড়াও চেয়ারম্যানকে জমি লিখে দিতে রাজী না হওয়ায় তার ভাইকে নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করে আবার একটি অস্ত্র দেখিয়ে পুলিশে হস্তান্তর করেছে।

এব্যাপারে বিরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজনের মুঠোফোনে একাধিবার যোগাযোগ করা হলেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এ দিকে একই ইউনিয়নের বাসিন্দা ও যুবলীগ উপজেলা সভাপতি এবং ঢাকা জেলা পরিষদের সদস্য সেলিম মন্ডল জানান সাহাবুদ্দিন সাহা একজন নীরিহ যুবক তাকে অন্যায়ভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে নির্যাতন করা হয়েছে। এবিষয়ে সাভার মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) তরিকুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। তবে অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন। এছাড়াও এ ঘটনায় কোন অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও তিনি জানান।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *