Main Menu

অসদাচরণের দায়ে ক্রিকেটার শিবলু ৩ বছরের জন্য বহিষ্কার

শেখ আমিনুর হোসেন, সাতক্ষীরা ব্যুরো চীফ:

অসদাচরণের দায়ে তিন বছরের জন্য বহিষ্কার করা হলো ক্রিকেটার শেখ রবিউল ইসলাম শিবলুকে। গত ৬ মার্চ সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্কার ক্রিকেট সাব কমিটির চেয়ারম্যান অনিন্দিতা রায় স্বাক্ষরিত পত্রে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

ওই পত্রে বলা হয়েছে, গত ৫ মার্চ ক্রিকেট সাব কমিটির সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্হা পরিচালিত ক্রিকেট কার্যক্রমসহ সকল প্রকার ক্রীড়া কার্যক্রম থেকে (খেলোয়াড়, টিম ম্যানেজার, কোচ) আগামী তিন বছরের জন্যে শেখ রবিউল ইসলাম শিবলুকে বহিষ্কার করা হলো।

সূত্র জানায়, অসদাচরণের অভিযোগে ক্রিকেটার শেখ রবিউল ইসলাম শিবলুকে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি শো’কজ নোটিশ দেয় সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্হা। ওই সময় তাকে ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শো’কজের লিখিত জবাব দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়। তবে, তার দেওয়া জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় গত ৫ মার্চ ক্রিকেট সাব কমিটির সভায় তাকে তিন বছরের জন্য বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, চলতি মৌসুমে জেলা ক্রিকেট দলে ডাক না পাওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে জেলা ক্রীড়া সংস্হার কর্মকর্তাদের সাথে কয়েক দফায় চরম অসদাচরণ করেন ক্রিকেটার ব্যাড বয় খ্যাত শেখ রবিউল ইসলাম শিবলু। ওই সময় তিনি সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ মাঠে কর্মরত পিচ কিউরটরের সাথেও চরম অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। তাকে কয়েকবার সতর্ক করা হলেও তিনি তার কৃতকর্মের জন্য অনুতপ্ত না হয়ে একের পর এক অঘটন ঘটাতে থাকেন। সর্বশেষ বাধ্য হয়ে জেলা ক্রীড়া সংস্থা তাকে শো’কজ নোটিশ করে।

 

এর আগে জাতীয় দলে থাকাকালে সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ মাঠে এক শিক্ষককে শারীরিকভাব লাঞ্ছিত করে আলোচনায় আসেন শিবলু। সে যাত্রায় ক্ষমা চেয়ে রেহাই পেলেও আচরণ ইতিবাচক পরিবর্তন আসেনি তার।

 

স্হানীয় ক্রীড়াবিদরা জানান, জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার পর হঠাৎই উগ্র হয়ে ওঠেন ক্রিকটার শিবলু। তিনি মানুষকে মানুষ মন করেন না। এরই এক পর্যায় তিনি সরকারি কলেজের এক শিক্ষককে শারীরিকভাব লাঞ্ছিত করেন। এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন আরও।

 

সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্হার ক্রিকেট সাব কমিটির চেয়ারম্যান অনিন্দিতা রায় এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *