Main Menu

সুনামগঞ্জে বরখাস্তকৃত দুই গ্রাম পুলিশের অভাব অনটনে দিনাতিপাত

নাইম তালুকদার, সুনামগঞ্জ :

 

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের ২ গ্রাম পুলিশকে অন্যায় ভাবে দীর্ঘদিন বেতন ভাতা বন্ধ রেখে চাকরী থেকে বরখাস্থ করেছেন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ জামাল উদ্দিন।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী দুইগ্রাম পুলিশ উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের বাক্ষ্রণগাঁও গ্রামের মৃত নামধর আলীর ছেলে মাহবুবুল আলম (মহল্লাদার) ও একই গ্রামর মৃত লাল মিয়ার ছেলে মো: হিরু মিয়া বেতন ভাতাসহ তাদের চাকুরী পিরে পাওয়ার জন্য রোববার দুপুরে আলাদাভাবে জেলা প্রশাসক,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত আবেদন করেছেন।

আবেদন পত্রে উল্লেখ করা হয় এই দুইগ্রাম পুলিশ ২০১৪ সালে ট্রেনিংপ্রাপ্ত হয়ে উত্তর বড়দল ইউনিয়নে গ্রাম পুলিশের চাকুরিতে যোগদান করেন এবং যোগদানের পর থেকে তারা সুষ্টুভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। তৎকালীন বড়দল উত্তর ইউনিয়নের সাবেক সচিবের অন্যায় আবদার পালন না করায় তৎকালীন সাবেক চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিনকে সচিব ভূল বুঝিয়ে তাদেরকে সাময়িকভাবে বরখাস্থ করা হয়। কিন্তু বরখাস্থের পর থেকে ওএই দুই গ্র্রাম পুলিশ পরিষদে তাদের কর্তব্য পালনে ছিলেন অটল। তারা দীর্ঘদিন ধরে চাকুরী করে বর্তমান চেয়ারম্যান ও সচিবের নিকট বেতন ভাতার জন্য ধরনা দিলে বেতনভাতা না পেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহারে অর্ধাহারে মানবেতন জীবনযাপন করে আসছেন।

এ ব্যাপারে আবেদনকারী দুই গ্রাম পুলিশ জানান আমরা চেয়ারম্যানের বাড়ী থেকে দুটি চুরি যাওয়া গরু উদ্ধার করে তাহিরপুর পুলিশের কাছে দেই এবং বাদী হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করার কারনে চেয়ারম্যান আমাদের বরখাস্থ করেন। আমাদের কোন দোষ ছিলনা  আমরা তৎকালীন চেয়ারম্যান ও সচিবের অন্যায় আবদারের প্রতিবাদ করায় আমরা দু’জনকে চাকুরী থেকে বরখাস্থ করা হয়েছিল । দীর্ঘদিন ধরে তাদের বেতনভাতা আদায় ও চাকুরী ফিরে পাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও প্রশাসনের উধর্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবী জানান।

এ ব্যাপরে জেলা পরিষদের চেয়ার আলহাজ¦ নুরুল হুদা মুকুট লিখিত আবেদনের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *