Main Menu

শেখ হাসিনা এশিয়ার চতুর্থ বর্ষীয়ান নেতা | বাংলারদর্পন 

নিউজ ডেস্ক: জ্যেষ্ঠতার বিচারে এশিয়া মহাদেশের চতুর্থ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার বয়স এখন ৭০ বছর। শুধু বয়সের তুলনাই নয়, এই বয়সে কোন নেতার শাসন কেমন, তারও সংক্ষিপ্ত চিত্রও তুলে ধরেছে ভারতের ডাটা লিডস নামে একটি প্রতিষ্ঠান। এশিয়া ও বিশ্বের সবচেয়ে প্রবীণ নেতা এখন মালয়েশিয়ার মাহাথির মোহাম্মদ। সম্প্রতি ৯২ বছর বয়সে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়ে এই রেকর্ডের অদ্বিতীয় মালিক হয়েছেন তিনি।

ডাটা লিডসের বিশ্নেষণে বলা হয়েছে, শেখ হাসিনার পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দেন এবং তিনি বর্তমানে তার যোগ্য রাজনৈতিক উত্তরসূরি। সেক্ষেত্রে অভিজ্ঞ রাজনীতিক হিসেবে তিনি বিশ্বে সমাদৃত। ৩৭ বছর ধরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। এর মধ্যে তিন মেয়াদে প্রায় ১৪ বছর সরকার প্রধান তিনি।

ডাটা লিডস-এ শেখ হাসিনার প্রশংসা করে আরো বলা হয়,”দুটি সামরিক শাসনামলের বিরুদ্ধে লড়াই করে এখনও টিকে আছেন তিনি। টাইম ম্যাগাজিনে বিশ্বের ১০০ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় রয়েছেন শেখ হাসিনা। রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েও সারা বিশ্বের সুনাম কুড়িয়েছেন তিনি”।

বিশ্লেষণে আরো বলা হয়, দেশে দেশে নেতা নির্বাচনে বয়স একটি বড় ইস্যু হয়ে দাঁড়ায়। একদিকে অভিজ্ঞতা, অন্যদিকে বার্ধক্য দুই বিষয়ই আলোচনায় থাকে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থিতা ঘোষণার পর ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বয়সের বিচারে প্রেসিডেন্ট পদে অযোগ্য বলে প্রমাণের চেষ্টা করে বিরোধীরা। একই প্রবণতা দেখা গিয়েছিল মালয়েশিয়ার মাহাথির মোহাম্মদের ক্ষেত্রেও। বিরোধীরা প্রচার করতে থাকে তার বয়স এতই বেশি যে, তিনি আর দেশ চালাতে পারবেন না। তারপরও দেশটির জনগণ নেতা হিসেবে তাকেই বেছে নিয়েছে। দেখা যায় বর্ষীয়ান এই নেতারা সকলেই নিজ নিজ দেশ যোগ্যতার সাথেই পরিচালনা করে আসছেন এবং যথেষ্ট সক্ষমতার পরিচয়ও দিয়ে চলেছেন।

এশিয়াতে জ্যেষ্ঠতার দিক থেকে দ্বিতীয় নেতা ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে এবং (৭৩), তৃতীয় লাওসের প্রধানমন্ত্রী থংলোন সিসোলিথ। শেখ হাসিনার পরেই রয়েছেন ভারতের জনপ্রিয় নেতা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার বয়স ৬৭ বছর। আর চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এখন ৬৪ বছরে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *