Main Menu

আফগানিস্থানে বোমা বিস্ফোরণে ১০ সাংবাদিক নিহত | বাংলারদর্পন

নিউজ ডেস্ক :

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে জোড়া আত্মঘাতী বোমা হামলায় ১০ সাংবাদিকসহ কমপক্ষে ৩১ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে পুলিশের চার কর্মকর্তা রয়েছেন। বিস্ফোরণ দুটিতে আরো অন্তত ৪৫ জন আহত হয়েছেন। ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করেছে।

আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সোমবার সকাল আটটার দিকে কাবুলের শাশদারক এলাকায় দেশটির কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার কাছে প্রথম বিস্ফোরণটি ঘটানো হয়। মোটর সাইকেল আরোহী এক দুর্বৃত্ত প্রথম বিস্ফোরণটি ঘটায়। পরে বিস্ফোরণের খবর সংগ্রহ করতে সাংবাদিকরা জড়ো হলে সেখানে আবারও হামলা চালানো হয়। ২০০১ সালে তালেবানের পতনের পর গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর আফগানিস্তানে এটাই সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা।

কাবুল পুলিশের মুখপাত্র হাশমত স্টানিকজাই বলেছেন, প্রথম বিস্ফোরণের কয়েক মিনিট পরই দ্বিতীয় বিস্ফোরণ ঘটে। প্রথম বিস্ফোরণের পরপরই ঘটনাস্থলে জড়ো হয়েছিলেন গণমাধ্যমকর্মী ও পুলিশের সদস্যরা। তখনই দ্বিতীয় হামলাটি চালানো হয়। তিনি বলেন, ‘হামলাকারী সাংবাদিকের ছদ্মবেশে এসেছিল। এরপর ভিড়ের মধ্যেই সে নিজেকে উড়িয়ে দেয়।’

এই হামলায় কাবুলে বার্তা সংস্থা এএফপির প্রধান আলোকচিত্রী শাহ মারাই, আফগান টিভি চ্যানেল আইটিভির প্রতিবেদক গাজী রাসুলি ও ক্যামেরাম্যান নওরোজ আলি রাজাবিও প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া রেডিও ফ্রি ইউরোপের আজাদি রেডিওর আবদুল্লাহ হানানজাই ও মোহাররম দুররানি নামের তাদের দুই কর্মী নিহত হয়েছেন। বিবিসি জানিয়েছে পৃথক ঘটনায় তাদের সাংবাদিক আহমেদ শাহকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

দুই দফা হামলায় ২৯ জন নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই হামলায় ৪৯ জন আহত হয়েছেন। ফলে নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে সিএনএন এর প্রতিবেদনে কাবুলে জোড়া আত্মঘাতী হামলায় ১০ সাংবাদিকসহ ৩১ জন নিহতের কথা বলা হয়েছে।

আফগানিস্তানে জঙ্গি হামলা বেড়েই চলেছে। গত সপ্তাহে কাবুলে একটি ভোটার নিবন্ধন কেন্দ্রে ভয়াবহ বোমা হামলায় নারী ও শিশুসহ অন্তত ৬০ জন নিহত হন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *