Main Menu

রূপপুরে বিদ্যুত সঞ্চালন লাইন তৈরির প্রকল্প গ্রহন | বাংলারদর্পন 

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বপ্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে রূপপুর। বাংলাদেশের একক বৃহত্তম প্রকল্প এটি। গত ১০ এপ্রিল রূপপুর থেকে দেশের মোট ১৩টি জেলায় বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে রূপপুরে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন নির্মাণ প্রকল্প উপস্থাপিত হয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির সভায় (একনেক)। এই প্রকল্পটির মাধ্যমে পারমাণবিক বিদ্যুতের যুগে প্রবেশ করলো বাংলাদেশ। প্রকল্পটির জন্য বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে প্রায় ১০ হাজার ৯৮১ কোটি টাকা।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, এই প্রকল্পটি স্থাপন করা হবে ৬০৯ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন। প্রকল্পটির প্রাথমিক ব্যয় ধরা হয়েছে ১০ হাজার ৯৮১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। এর মধ্যে জিওবি ১ হাজার ৫২৭ কোটি টাকা, সংস্থার নিজস্ব তহবিল ১ হাজার ২৩৫ কোটি টাকা এবং প্রকল্প ঋণ ৮ হাজার ২১৯ কোটি টাকা। বৈদেশিক ঋণ হিসেবে এই অর্থ দেবে ভারত। ইন্ডিয়ান লাইন অব ক্রেডিটের আওতায় এ ঋণ মিলেছে। অনুমোদন পেলে এটি বিদ্যুৎ বিভাগের আওতায় পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেড কর্তৃক বাস্তবায়িত হবে। চলতি বছরের ডিসেম্বর থেকে ২০২২ পর্যন্ত মেয়াদকালে বাস্তবায়নের কাজ শেষ করার লক্ষ্য ধরা হয়েছে।

জানা গেছে, ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের ১৩টি জেলার ৩৭টি উপজেলায় এই বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন হবে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশে বিদ্যুতের চাহিদা অত্যন্ত দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিদ্যুতের এই ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণ, লোড শেডিং হ্রাসকরণ এবং ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সকল মানুষকে বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় আনার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার সমগ্র দেশে বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। স্বল্পমূল্যে জনসাধারণকে বিদ্যুৎ প্রদানের জন্য সরকারের গৃহীত পরিকল্পনার অংশ হিসেবে রূপপুরে দুটি ১২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *