Main Menu

ড. মাহমুদ হাসান ছিলেন মুক্তচিন্তার রাজনীতিবিদ : স্মরনসভায় এম.এ সালাম

 

চট্টগ্রাম ব্যুরো :

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম.এ সালাম বলেছেন, আল্লাহর সৃষ্টির সেরাজীব মানুষের কল্যাণে কাজ করাই বড় ইবাদত; ড. মাহমুদ হাসান সেই কাজটিই আমৃত্যু করে গেছেন। একজন মুক্ত চিন্তার মানুষ হিসেবে অসাম্প্রদায়িক রাজনীতিকে ধারণ করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিকাশে তিনি নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠাই ছিল তার জীবনের রাজনীতির দর্শন। বিপুল অর্থ বৃত্তের মালিক হওয়া সত্বেও তিনি সাধারণ জীবন যাপনে অভ্যস্ত ছিলেন। মানুষের কল্যানে কাজ করাই ছিল তার জীবনের ব্রত। তিনি আমৃত্যু স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শাণিত অকুতোভয় যোদ্ধা ছিলেন। অসম্প্রদায়িকতার মননে মননশীল, বাঙালি সত্ত¡ার প্রতি নিবিষ্টচিত্ত দেশপ্রেমিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে তিনি মৌলবাদ, জঙ্গিবাদ ও ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে আপোষহীন-সোচ্চার উদারপ্রাণ চরিত্রের অধিকারী হিসেবে সর্বমহলে গ্রহণযোগ্য আলোকিত পুরুষ ছিলেন। তার এইসব বৈশিষ্ট ধারণ ও লালন করার মাধ্যমে সামাজিক বিবর্তন সফল করার মধ্যেই তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন যথার্থ হবে। তার মৃত্যুতে আওয়ামী রাজনীতিতে যে শুন্যতার সৃষ্টি হয়েছে তা সহজে পুুরণ হবার নয়। তিনি আজ ১ এপ্রিল রবিবার বিকেলে সংগঠনের কার্যকরী কমিটির সাবেক সদস্য, বিশিষ্ট সমাজসেবক, শিক্ষানুরাগী ও রাজনীতিবীদ ড. মাহমুদ হাসানের ১ম মৃত্যু বার্ষিকীতে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে একথা বলেন। সংগঠনের সহসভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো: মঈনুদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশীষ পালিতের সঞ্চালনায় স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: গিয়াস উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: জসিম উদ্দিন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক জসিম উদ্দিন শাহ, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো: হারুন, আইন সম্পাদক এড. ভবতোষ নাথ, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক ফখরুল আনোয়ার, উপদপ্তর সম্পাদক আলাউদ্দিন সাবেরী, কার্যকরী কমিটির সদস্য মো: শওকত আলম, খাদিজাতুল আনোয়ার সনি, সৈয়দ মো: বাকের, ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরী, উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি দিলোয়ারা ইউসুফ, সাধারণ সম্পাদিকা এড. বাসন্তী প্রভা পালিত, সিনিয়র সহসভাপতি সৈয়দা রিফাত আক্তার নিশু, যুবমহিলা লীগের আহবায়িকা রওশন আরা রত্না ও মরহুম নেতার পরিবারে পক্ষে জৈষ্ঠ্যপুত্র, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য আকতার উদ্দিন মাহমুদ পারভেজ। সভায় মরহুম নেতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *