Main Menu

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে চেয়ারম্যানের বাসা থেকে ২২৯বস্তা ভিজিএফ’র চাল উদ্ধার

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় তাড়ল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের বাস ভবনে রাখা ভিজিএফ এর ২২৯ বস্তা এর চাল জব্দ করেছে উপজেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে শনিবার দিবাগত গভীর রাতে দিরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মইন উদ্দিন ইকবাল’র নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপজেলা সদরস্থ হারনপুর গ্রামের একটি বাসভবনে অভিযান চালিয়ে ঐ চালগুলো জব্দ করেন।

এসময় তাড়ল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কদ্দুছ তার নিজ বাসভবনে উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোববার সকালে বিজিএফ এর চাল গুলো উপজেলা খাদ্য গুদামে জমা দানের জন্য চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছকে নির্দেশ দিয়েছেন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তাড়ল ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কদ্দুছ বলেন, আমি এর আগেও আমার নিজের বাসায় চাল রেখে ভিজিএফ কার্ড ধারীদের মধ্যে সুন্দর ভাবে বিতরন করেছি। কার্ড ধারীদের সুবিধা মতে আমার এখানে চাল রেখে দিচ্ছি। আমাকে মিথ্যা ভাবে ফাঁসাতে প্রতি পক্ষরা এমন করছে। গত ১৭ মার্চ একই উদ্দেশ্যে চাল গুলো খাদ্য গুদাম হতে উত্তোলন করে আমার নিজ বাস ভবনে জমা রেখেছি। ব্যক্তিগত বাসভবনে সরকারী ভিজিএফ এর চাল জমা করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কোন পূর্বানুমতি নিয়েছিলেন কিনা? জানতে চাইলে চেয়ারম্যান কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। ভিজিএফ এর চাল বিতরণের দায়িত্বে থাকা ট্যাগ অফিসার রণধীর রায় বলেন, বিনানুমতিতে ব্যক্তিগত বাসভবনে সরকারী ভিজিএফ এর চাল অবৈধভাবে মজুত রাখার অভিযোগে তাড়ল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কদ্দুছ এর বাসভবনে অভিযান চালিয়ে চাল জব্দ করা হয়েছে। এখন জব্দকৃত চালগুলো খাদ্যগুদামে নেয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মইন উদ্দিন ইকবাল বলেন, এ ঘটনার ব্যাপারে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। তদন্তের পর জব্দকৃত চালের ব্যাপারে সিদ্বান্ত নেয়া হবে।

এদিকে ভিজিএফ গ্রহীতারা তাদের চাল সংগ্রহের জন্য চেয়ারম্যানের বাসায় ভীড় জমিয়েছেন বলে স্থানীয় লোকজন জানান। তারা বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে গ্রাম পুলিশদের হেফাজতে না রেখে নিজের বাসভবনে ভিজিএফ এর চাল মজুত রাখার উদ্দেশ্যই হচ্ছে কালোবাজারে বিক্রয় করে অবৈধ সুবিধা নেয়া। এ অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়েরের জন্য এলাকাবাসী জেলা প্রশাসকের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *