Main Menu

রাজবাড়ীতে ৫লিটার মদসহ সুইপার অাটক

রাজবাড়ী প্রতিনিধি: রাজবাড়ী শহরের মাছ বাজার এলাকা থেকে বাংলা মদ ব্যবসায়ী অশোক কুমার কে ৫ লিটার বাংলা মদ সহ আটক করেছে সদর ফাঁড়ি পুলিশ। 

খাওয়ার লাইসেন্স দিয়েই দাস এন্ড সন্স থেকে ৫লিটার মদ কিনেছি সুপার অশোকের দাবি।তবে দাস এন্ড সন্সএর ম্যানেজার বলছে অশোকের কাছে মদ বিক্রি করেন নি কারন অশোকের খাওয়ার লাইসেন্স নেই। আর লাইসেন্স ছাড়া কারো কাছে মদ বিক্রি করেন না তারা। 

 

গ্রেফতারকৃত অশোক কুমার লাল, শহরের ১নং রেলগেট এলাকার সুইপার কলোনীর মৃত কালিপদের ছেলে।

 

রাজবাড়ী সদর ফাঁড়ি র আইসি মোঃ মিজানুর রহমান জানান, সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মাছ বাজার এলাকা থেকে ৫লিটার বাংলা মদ সহ গ্রেফতার করে এএস আই মোঃ কামাল হোসেন। তিনি আরো জানান অশোক কুমারের বিরুদ্ধে সদর থানা ও ডিবি পুলিশে একাধিক মামলা রয়েছে।

 

অশোক কুমার লাল একজন সুপার হলেও তার মদ খাওয়ার লাইসেন্স নেই।তিনি লাইসেন্স আছে বলে জানান পুলিশের কাছে।কিন্তু তিনি পুলিশকে লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হয়। তাই তাকে অবৈধভাবে বাংলা মদ বহন করার অপরাধে গ্রেফতার করে পুলিশ।

 

মাছ বাজারের পাশে বাংলা মদের দোকান দাস এন্ড সন্স সরকারি লাইসেন্স ধারী প্রতিষ্ঠান। এই মদের দোকানটি প্রতিদিন সকাল ১১টায় খুলবে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিক্রি করবে। তবে লাইসেন্স আছে যাদের তাদের কাছে। শুধু মাত্র একজন লাইসেন্স ধারী ক্রেতার কাছে মাসে ১০ লিটার মদ বিক্রি করতে পারবে তারা।

 

কিন্তু এই অশোক কুমার লালের লাইসেন্স না থাকা সত্তেও প্রতিদিন দাস এন্ড সন্স বাংলা মদের দোকান থেকে সে মদ ক্রয় করেন এবং সেই মদ রেল স্টেশন এলাকার হরিজন পল্লীতে তার নিজ বাড়িতে রেখে বিক্রি করে আসছেন দীর্ঘ দিন যাবত। এর আগেও সে একাধীক বার পুলিশের হাতে বাংলা মদ সহ আটক হয়েছে।

 

দাস এন্ড সন্স বাংলা মদের দোকানের ম্যানেজার অশোক সিকদার জানান, তিনি অশোক কুমারের কাছে কোন মদ বিক্রি করেন নি, তিনি বেজু  নামের একজন সুপারের কাছে ২লিটার মদ বিক্রি করেছেন যার  লাইসেন্স নাম্বার ১১০। কিন্তু অশোক কুমার পুলিশ ও সাংবাদিকের কাছে বলেছেন তার খাওয়ার লাইসেন্স আছে এবং তিনি দাস এন্ড সন্স থেকেই মদ কিনেছেন কাওয়ার জন্য।

 

ম্যানেজার অশোক সিকদার সুইপার অশোকের সিকার করার বিষয়ে বলেন, অশোকের তো খাওয়ার লাইসেন্স ই নাই তার কাছে তো মদ বিক্রি করার প্রশ্নই উঠেনা।

একটি প্রশ্ন থো যাগতেই পারে মনে, কিভাবে অশোকের কাছে এই ৫লিটার বাংলা মদ, আসলো কোথা থেকে?

অশোক কুমার লাল মাছ বাজার এলাকা থেকে ধরা পরেছে পুলিশের হাতে, তো সে এই মদ কোথা থেকে কিনেছে এটা কি আর বোঝার বাকি থাকে? তাকে রাজবাড়ী সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *