Main Menu

দিরাই কুলঞ্জ ইউপিতে জলমহাল নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৫

 

এস,এম,ওয়াহিদুল ইসলাম, সুনামগঞ্জ থেকেঃ

 

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কুলঞ্জ ইউনিয়নের আবারো জলমহাল নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে মজনু মিয়া (৬৫) নামে একজন নিহত অপর ৫জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বিরোধপূর্ণ জলমহালে দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের কয়েকজন শীর্ষনেতা অংশীদার বলে নিহতের পক্ষ জানিয়েছেন।

আজ সকাল ৯টার পর তেতৈয়া গ্রাম সংলগ্ন টাংনি পশ্চিম খন্ড প্রকাশ শষা নদীতে বিরোধপূর্ণ জলমহাল নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান তেতৈয়া গ্রামের মজনু মিয়া(৬৫) তিনি বর্তমান কুলঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান তালুকদারের বড় বোন জামাতা বলে নিশ্চিত করেছেন চেয়ারম্যান নিজেই। গুরুতর আহতাবস্থায় একি গ্রামের লোকমান মিয়ার ছেলে নাজমুল কে সিলেট ওসমানীতে প্রেরণ করা হয়েছে। তার অবস্থা সংকটজনক বলে প্রত্যক্ষদর্শী শাহ জাহান জানিয়েছেন।

 

উল্লেখ্য টাংনি বিলের শষা নদীর জলমহাল নিয়ে কয়েক মাস পূর্ব থেকে মালিকানা বিরোধের জেরে মামলা পাল্টা মামলা ও বিবাদ চলে আসছে। জলমহাল সংলগ্ন জমির মালিক পক্ষ ইসলামপুর ও তেতৈয়া গ্রামের কৃষক আহাদ মিয়া, নিহতের ছেলে হুমায়ুন ও অজুদ সহ ২০-২৫জন এর সাথে কুলঞ্জ গ্রামের মনির মিয়ার ছেলে ধনেল মিয়া ও তেতৈয়া গ্রামের ছবারক মিয়ার ছেলে আব্দুল আলিম মেম্বার, গিয়াস উদ্দিনের ছেলে ডালিম মিয়া, মনছব উল্লার ছেলে ওয়াকিব উল্লা, জায়ফর উল্লার ছেলে বাবুল মিয়া, শামছুদ্দিনের ছেলে লিটন মিয়া ও আবু তাহের গংদের সাথে।

প্রত্যক্ষদর্শী আসাদ মিয়ার ছেলে শাহ জাহান সহ অন্য কয়েকজন মুঠোফোনে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ প্রতিনিধিকে নিশ্চিত করেন, আজ সকালে ধনেল মিয়া, আব্দুল আলিম মেম্বার, ডালিম ও ওয়াকিবের নেতৃত্বে ২০-২৫ জনের সংঘবদ্ধ চক্র পরিকল্পিত ভাবে দেশীয় অস্ত্রসজ্জিত হয়ে জলমহালে আসলে- আহত নাজমুল, নিহত মজনু মিয়ার ছেলে হুমায়ুন, অজুদ, আহাদ মিয়া ও আছান উল্লাহ গং বাধা দিলে সংঘর্ষ বাধে। নিহত মজনু মিয়া নিরস্ত্র অবস্থায় মারামারি থামানোর চেষ্টারত অবস্থায় প্রতিপক্ষের আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পরে ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন। এলাকার পরিস্থিতি থমথমে বিরাজ করছে। মুঠোফোনে দিরাই দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মস্তফা কামাল বলেন খবর পেয়ে দিরাই থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে নিহতের লাশ থায় নিয়ে আসে এখন ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ প্রেরণ করা হচ্ছে। লিখিত অভিযোগ পেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *