Main Menu

এমপি লিটনকে গুলি করে হত্যা

 

গাইবান্ধা : গাইবান্ধার-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন (এমপি) নিজ বাসায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। আজ (শনিবার) সন্ধ্যা পৌনে ছয়টার দিকে সুন্দরগঞ্জের বামনডাঙ্গার নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তরা এমপি লিটনকে লক্ষ্যকরে গুলি ছোড়ে।

আহত অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হলে সাড়ে সাতটার দিকে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মৃত্যুর সংবাদ নিশ্চিত করেছেন গাইবান্ধা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রেজাউল করিম ভূইয়া।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানা গেছে: সন্ধ্যা পৌনে ছয়টার দিকে তিন যুবক মোটরসাইকেল যোগে এমপি লিটনের বামনডাঙ্গার বাড়িতে আসে। এসময় তিনি বৈঠকখানায় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন।

দুই যুবক বাসার ভেতরে ঢুকে লিটনকে লক্ষ্য করে পাঁচ রাউন্ড গুলি ছুড়লে তিনি আহত অবস্থায় পড়ে যান। তারা বুকে ও হাতে দু’টা করে গুলিবিদ্ধ হয়। এর পরপরই দুর্বৃত্তরা দ্রুত বৈঠকখানা থেকে বের হয়ে মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যান।

তবে কে বা কারা এই গুলি চালিয়েছে তা এখনো জানতে পারেনি পুলিশ।

এর আগে শিশু শাহাদাত হোসেন সৌরভকে গুলি করার ঘটনায় সমালোচিত হন এমপি লিটন। ২০১৫ সালের ২ অক্টোবর গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য লিটনের ছোড়া গুলিতে শাহাদাত হোসেন সৌরভ নামে নয় বছর বয়সী ওই শিশু আহত হয়। দুই পায়ে তিনটি গুলির ক্ষত নিয়ে দীর্ঘদিন তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হয়।

শিশুটির বাবা সাজু মিয়া ঘটনার পরদিনই সাংসদ লিটনকে আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এছাড়া গুলির ঘটনার পর সর্বানন্দ ইউনিয়নের উত্তর শাহাবাজ গ্রামে লিটনের লোকজনের হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগে আরেকটি মামলা করেন হাফিজার মণ্ডল নামের এক ব্যক্তি। এ মামলায় আসামি করা হয় দশজনকে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *