Main Menu

ছাগলনাইয়ায় দেড় একর জায়গার সন্ধান পেল পুলিশ

ফেনী  প্রতিনিধি :

বাংলাদেশের ভারতের ত্রিপুরা সীমান্তবর্তী ছাগলনাইয়া উপজেলার জগন্নাথ সোনাপুরে অবিভক্ত ভারতীয় উপমহাদেশে ব্রিটিশ আমলে চেকপোষ্টের দেড় একর জায়গার সন্ধান পেয়েছে ছাগলনাইয়া থানা পুলিশ। গত সোমবার বিকেলে ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান, মো. জুনায়েত কাউছার ও ছাগলনাইয়া থানার ওসি এমএম মোর্শেদ উপজেলার প্রত্যন্ত সীমান্তবর্তী পুলিশের ওই জায়গাটি শনাক্ত করেছেন । ফেনী পুলিশের পক্ষ থেকে নতুন আবিষ্কৃত জায়গায় পুলিশের জন্য একটি অফিসার্স ম্যাচ ও পুলিশ ক্লাব নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানাগেছে।

 

জানা যায়, ভারত পাকিস্তান বিভক্ত হওয়ার পূর্বে ১৮৯০সালে বাংলা ও ত্রিপুরার মধ্যবর্তী স্থানে বিট্রিশ সরকার একটি চেকপোষ্ট স্থাপন করেছিল । ভারত-পাকিস্তান ভাগ হওয়ার পর চেকপোষ্টটি পূর্বপাকিস্তান ও ভারতের ক্রিপুরার সীমান্ত এলাকায় পড়ে যায় । পাকিস্তান সরকার সীমান্ত এলাকা থেকে চেকপোষ্ট সরিয়ে প্রায় ১০কিলোমিটার দূরবর্তী পশ্চিম ছাগলনাইয়াতে  নিয়ে আসে । বর্তমানে ওই চেকপোষ্টটি ছাগলনাইয়া থানা নামে পরিচিত। পাকিস্তান আমল পরবর্তী বাংলাদেশ স্বাধীনের দীর্ঘ সময় ধরেও ছাগলনাইয়া উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের জগন্নাথসোনাপুর গ্রামের পুলিশ প্রশাসনের ওই জায়গা সম্পর্কে অবগত ছিল না । চেকপোষ্টের আবিস্কৃত জায়গার কয়েকশ ফুট ওপারেই ভারতীয় বিএসএফর সীমান্ত ক্যাম্প রয়েছে । সম্প্রতি ছাগলনাইয়া থানায় যোগদান করে নবাগত ওসি এমএম মোর্শেদ জায়গাটির সন্ধান পেয়েছেন বলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মনিরুজ্জামান জানিয়েছেন। সোমবার (২৯ জানুয়ারী)  বিকেলে প্রথমবারের মতো পুলিশের কর্মকর্তাগন জায়গাটি বুঝে নিয়েছেন । বর্তমানে জায়গাটিতে কয়েকটি পরিবার বসতি স্থাপন করেছে ।

 

এ ব্যাপারে  ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, দুই দেশের সীমান্তবর্তী নতুন আবিস্কৃত জায়গায় পুলিশের অফিসার্স মেচ ও পুলিশ ক্লাব নির্মাণের একটি পরিকল্পনা আছে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *