Main Menu

রোহিঙ্গা ও বিএনপির সঙ্গে মিলে ষড়যন্ত্র করছে আইএসআই- banglardarpan.com

 

 

banglardarpan.com>>>গত বুধবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি ভারত ও মিয়ানমারের মধ্যে সন্ত্রাসবাদবিরোধী নিরাপত্তা সহযোগিতা বাড়াতে একমত হন। এটা কেবল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের লড়াইয়ের জন্য নয়, ভারতের আশংকা রোহিঙ্গাদের মধ্যে পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের ঢুকে পড়া নিয়ে।

ভারত এবং বাংলাদেশ তাদের যৌথ সন্ত্রাসবিরোধী সহযোগিতার মাধ্যমে জানতে পারে যে, প্রধানমন্ত্রী মোদীর সফরকে সামনে রেখে আইএসআই মিয়ানমারের রাখাইনে হামলার পরিকল্পনা করছে।

 

সূত্র জানিয়েছে, ভারত, বাংলাদেশ ও মিয়ানমার এই অঞ্চলে হুমকি মোকাবেলায় তথ্য আদান-প্রদানের দিকে এগুচ্ছে। সূত্র জানায়, ভারত এবং বাংলাদেশ যৌথভাবে জানতে পারে যে, আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) সামরিক শাখার প্রধান হাফিজ তোহার আইএসআইয়ের সঙ্গে ঘনিষ্ট যোগাযোগ রক্ষা করে চলছে। সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে আইএসআই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে যাতে মিয়ানমারের সেনা সদস্যরা মারা যান। সূত্র জানায়, আগষ্টের শেষ সপ্তাহে তোহার এবং আইএসআইয়ের মধ্যে ফোনালাপ হয়। ওই ফোনালাপে সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

 

হাফিজ তোহার আকা মুল মুজাহিদীন (এএমএম) প্রতিষ্ঠা করে এবং পাকিস্তানে প্রশিক্ষণ নেয়। লস্কর-ই-তৈয়বা তাকে প্রশিক্ষণ দেয়। গত বছরের ৯ ও ১০ অক্টোবর এবং চলতি বছরের ২৫ আগষ্টে মিয়ানমারে হামলার পেছনে তোহারের হাত রয়েছে। রাখাইন রাজ্য  এবং বাংলাদেশের কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গাদের আকা মুল মুজাহিদীনে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এ সংক্রান্ত একজন বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন, এসব রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে বিশেষ করে চট্টগ্রামের পার্বত্য অঞ্চলে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

 

একজন বিশেষজ্ঞের মতে, আইএসআইয়ের ব্রিগেডিয়ার আশফাক এবং মেজর সালামাত এএমএমকে সহযোগিতা করছে এবং বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সঙ্গে ঘনিষ্ট সম্পর্ক স্থাপনে মদত দিচ্ছে। অভিযোগ আছে, ব্রিগেডিয়ার আশফাক বাংলাদেশের বিরোধী দল বিএনপির সঙ্গে ঘনিষ্ট সম্পর্ক রাখছেন। সমপ্রতি শেখ হাসিনা সরকারের পতন ঘটাতে লন্ডনে ব্রিগেডিয়ার আশফাক বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং পুত্র তারেক রহমানের সঙ্গে বৈঠক করেন। আইএসআই চায় ঢাকায় ক্ষমতায় আসুক বিএনপি। এতে আইএসআই রোহিঙ্গাদের সঙ্গে জেএমবির যোগসূত্র স্থাপন করে এই অঞ্চলে উত্তেজনা সৃষ্টি করতে পারবে।

Banglar Darpan






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *