Main Menu

কোম্পানীগঞ্জে ধর্ষিতার পরিবার কে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে সমাজচ্যুত

 

গিয়াস উদ্দিন রনি: নোয়াখালী জেলার কোম্পানীগঞ্জে ধর্ষিতার পরিবার কে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে সমাজচ্যুত করার অভিযোগ উঠেছে। সরেজমিন গিয়ে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সিরাজপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বদু হুজুরের নতুন বাড়ির শিউলী আক্তার (১৭) এর সহিত বিবাহের প্রলোভনে ৩ বছর যাবত শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন (ধর্ষণ) করে প্রতিবেশী যুবদল নেতা মাইন উদ্দিন।

  এ ঘটনা গত ৭ রমজানে প্রকাশ পেলে ১ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে উঠে পড়ে লাগে যুবদল নেতা মাইন উদ্দিন এবং কতিপয় সমাজপতিরা। এই ঘটনায় ধর্ষিতার পরিবার সমাজপতিদের ধারে ধারে ঘুরে বিচার না পেয়ে বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল,নোয়াখালীতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সং-২০০৩) এর ৯(১) ধারায় নাঃশিঃ ১০২৩/২০১৭ ইং নং মামলা আনয়ন করে।

স্থানীয় সমাজপ্রতিদের অমান্য করে,কোর্ট এ মামলা করার ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হয়ে আমিন উদ্দিন মসজিদ সমাজের সভাপতি সাহাব উদ্দিন  কাজল এর নেতৃত্বে ৪ আগস্ট শুক্রবার জুমার নামাজের পর মাইকে ঘোষনা দিয়ে শিউলী আক্তার এর পরিবার কে সমাজচ্যুত  করে। এ ঘটনা ধর্ষিতার পরিবার কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)সৈয়দ ফজলে রাব্বী কে সমাজচ্যুত হওয়ার বিষয়ে অবহিত করেন।

 বর্তমানে ধর্ষিতার পরিবার ও মামলার সাক্ষীরা সমাজপতিদের হুমকির মুখে দিনাতিপাত করছে। এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ ফজলে রাব্বী’র মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান,এ বিষয়ে আমার কাছে অভিযোগ করেছে ধর্ষিতার পরিবার। অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমি স্থানীয় ইউপি সদস্য কে এ ঘটনায় সতর্ক করেছি। 

আমিন উদ্দিন মসজিদ সমাজের সভাপতি সাহাব উদ্দিন কাজল’র সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে মসজিদের মাইকে ঘোষনা দিয়ে সমাজচ্যুত করার কথা স্বীকার করে বলেন,আমরা মসজিদের ভিতরের মাইকে ঘোষনা দিয়ে শিউলীর পরিবার কে সমাজচ্যুত করি। শিউলীর বাবা মসজিদের সামনে দাঁড়িয়ে অকথ্য ভাষায় সমাজপতিদের  গালি-গালাজ করে। তারা বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত। তবে কাজল নিজেকে নিরেপেক্ষ বিচারক দাবি করলে ও ধর্ষিতার পরিবার তার বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগ করেন। অসহায় সমাজচ্যুত পরিবার স্থানীয় ইউপি সদস্য হায়দার হোসেন স¤্রাট’র কাছ থেকে ও কোন সহযোগিতা পাচ্ছেন না বরং অভিযুক্ত যুবদল নেতা মাইন উদ্দিন’র পক্ষে কৌশলে কাজ করছেন বলে জনশ্রুতি রয়েছে।

এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  মো. জামিরুল ইসলাম কে মুঠোফোনে অবহিত করলে তিনি খবর এ বিষয়ে খোঁজ খবর নিবেন বলে এই প্রতিবেদক কে আশ্বস্ত করেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *