Main Menu

ফুলবাড়ীতে মুক্তিযোদ্ধার বাড়ী ভাংচুর ও গাছ কর্তনের অভিযোগ


মােঃ আফজাল হােসেন : দিনাজপুর প্রতিনিধি
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে বাড়ীর জায়গার সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক মুক্তিযাদ্ধার বাড়ীর প্রাচির ভাংচুর ও ফলদ গাছ কর্তনের অভিযোগ পাওয়া গেছে, ওই মুক্তিযোদ্ধার ভাই ভাতীজাদের বিরুদ্ধে।
গত বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায়, উপজেলার শিবনগরে ইউনিয়নের রামভদ্রপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা লোকমান আলী বাদি হয়, ওই দিন রাত ৬ জনকে বিবাদি করে ফুলবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগকারী মুক্তিযােদ্ধা লােকমান আলী বলেন, রামভদ্রপুর মৌজার ৪৬শতক পৈত্রিক সুত্রে পাওয়া বসত ভিটায়, সহ তার অন্য ৪ভাই ভাগ করে নিয়ে বসবাস করছেন, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে, সে বাড়ীতে না থাকায়, তার ভাতিজা, আব্দুল মান্নানের ছেলে মামুনুর রশিদ, আব্দুল লতিফের ছেলে অহিদুল হক, মামুনুর রশিদের স্ত্রী মোছাঃ বানু বেগম, আবুল কাশেমের ছেলে সাখওয়াৎ হােসেন,ও আব্দুল লতিফর স্ত্রী আরিফা খাতুনসহ ১০ থেকে ১২ জন একত্রিত হয়, তার বাড়ীর সীমানা প্রাচির ভেঙ্গে ফল এবং তার লাগানাে ফলদ ও কাঠের ৬টি গাছ কেটে নিয়ে যায়। সে খবর পেয়ে তাদেরকে বাধা দিতে গেলে, তাকেও প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এই ঘটনায় তিনি ৬জনকে বিবাদি করে ফুলবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
মুক্তিযােদ্ধা লােকমান আলীর ভাই আব্দুল লতিফ, ও তার ভাতিজা আবুল কাশেমের ছেলে মামুনুর রশিদ বলেন, মুক্তিযোদ্ধা লােকমান আলী তাদের বাড়ী থেকে বের হওয়ার রাস্তা প্রতিবেশি সকছদ আলীর নিকট বিক্রি করছ, এত তাদর বাড়ী থক বর হওয়ার রাস্তা বন্ধ হয় গছ, তাদর বাড়ী থেকে বের হওয়ার রাস্তা তৈরী করার জন্য সীমানা প্রাচির ভঙ্গ দয়া হয়ছ। আব্দুল লতিফ বলন, এই জায়গা তাদর বাব-দাদার ভিটা একার কারা নয়, তাই চলাচলের রাস্তা নির্মান করতে প্রাচির ভেঙ্গে দেয়া ছাড়া আর কােন উপায় নাই, তাই ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। এই ঘটনাকে কেদ্র করে মুক্তিযােদ্ধা লোকমান আলীর পরিবার ও তার প্রতিপক্ষ পরিবারের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।
এই ঘটনায় ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোকসেদ আলীর সাথে যােগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়েছি বিষয়টি তদÍ করা হচ্ছে এবং উভয় পক্ষকে শাÍ থাকার নির্দ্দেশ দেয়া হয়েছে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *