Main Menu

সীমান্তের তিন শীর্ষ মাদক চোরাকারবারীর বিরুদ্ধে বিজিবির মামলা

স্টাফ রিপোর্ট:
সীমান্তের তিন শীর্ষ মাদক চোরাকারবারীর বিরুদ্ধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) মামলা দায়ের করেছে।

প্রায় লক্ষাধিক টাকা মুল্যের বিদেশি মদ,বিয়ারের চালান জব্দ করার ঘটনায় ওই মামলাটি দায়ের করা হয় সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানায়।

মামলায় আসামীরা হলেন, উপজেলার উওর শ্রীপুর ইউনিয়নের সীমান্ত গ্রাম লাকমা সীমান্ত গ্রামের কিয়াম উদ্দিনের ছেলে লিঠন মিয়া,একই সীমান্তের লালঘাট গ্রামের মনু মিয়া প্রকাশ ভানু হোসেনের ছেলে আবুল কালাম, একই সীমান্তের উওর বাদাঘাট ইউনিয়নের সীমান্ত গ্রাম লাউরগড়ের জাহিদ মিয়ার ছেলে শাহজাহান কবির।

শনিবার ২৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন সুনামগঞ্জ (বিজিবি)’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. তসলিম এহসান( পিএসসি) তিন মাদক চোরাকারবারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

শনিবার বিকেলে ২৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন সুনামগঞ্জ (বিজিবি)’র মিডিয়া সেল জানায়, ব্যাটালিয়নের টেকেরঘাট কোম্পানী সদরের বিজিবির টহল কমান্ডার হাবিলদার ওলি উল্লাহর নেতৃত্বে বিজিবির একটি চৌকস টিম নিজস্ব গোয়েন্দা সুত্র হতে প্রাপ্ত তথ্যের ভিক্তিতে সীমান্ত গ্রাম লাকমায় মাদক বিরোধী অভিযানে নামেন বুধবার দিবাগত রাতে।

ওই রাতে বিদেশি মাদক ক্রয় বিক্রয়কালে লাকমার লিটন মিয়ার বসতবাড়ির রান্না ঘরে গ্যাসের চুলার নিকট বিশেষ কায়দায় রাখা অফিসার্স চয়েজ প্রেসটিজ হুইস্কি, ম্যগডুয়েল হ্ইুস্কি, রয়্যাল ষ্টেগ ব্লান্ডেড হুইস্কি, কিং ফিসার বিয়ার ক্যান সহ বিভিন্ন ব্রান্ডের প্রায় লক্ষাধিক টাকা মুল্যের ৬৯ বিদেশি মদ ও বিয়ার জব্দ করে।

ওই সময় বিজিবির গ্রেফতার এড়াতে বসতবাড়ির মালিক সীমান্তের শীর্ষ মাদক চোরাকাবারী লিটন সহ তারই অপর দুই সহযোগী কৌশলে পালিয়ে যায়।

জব্দ তালিকা শেষে বিজিবির টহল কমান্ডার হাবিলদার ওলি উল্লাহ বাদী হয়ে বিদেশি মদ, বিয়ার ক্রয় বিক্রয়ের উদ্ধেশ্যে নিজেদের হেফাজতে মজুদ রাখার অভিযোগে সীমান্তের তিন শীর্ষ চোরাকারবারীর বিরুদ্ধে তাহিরপুর থানায় শুক্রবার মামলা দায়ের করেন।।

শেয়ার করুনঃ





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *