Main Menu

পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে জবির ১৮ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি | বাংলারদর্পণ

প্রতিবেদকঃ
পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের কারণে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) এর ১৮ (আঠারো) শিক্ষার্থীর বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি প্রদান করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০) কর্তৃপক্ষের নির্দেশক্রমে জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তর এর উপ-পরিচালক মোঃ সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২ সেপ্টেম্বর-২০২০ ‘শৃঙ্খলা কমিটি’র ৫৩তম সভা উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান-এর সভাপতিত্বে তাঁর সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের কারণে ১৮ জন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি প্রদান করা হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামালকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, বিভিন্ন সময়ে পরীক্ষায় নকল অর্থাৎ অসদুপায় অবলম্বনের জন্য এসব শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়া হয়েছে।

শাস্তির ধরন জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, কাউকে সেমিস্টার বহিষ্কার করা হয়েছে, কিছু শিক্ষার্থীকে জরিমানা করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, জরিমানা নামমাত্র করা হয়েছে, কারন করোনার জন্য শিক্ষার্থীরা এমনেই সমস্যাই আছে তাই তারা যাতে নামমাত্র জরিমানা দিয়ে সেমিস্টার ড্রপ থেকে বাঁচতে পারে।

বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- পরিসংখ্যান বিভাগ ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের সাখাওয়াত হোসেন, প্রাণীবিদ্যা বিভাগ ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মো. হাসিবুজ্জামান একই বিভাগ ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের মো. ফয়সাল মাহমুদ, আশিকুল ইসলাম রাতুল, তানজিনা, রসায়ন বিভাগ ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের আপন ঘোষ, মার্কেটিং বিভাগ ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের আশিক আহমেদ আনন, একই বিভাগ ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের পিয়াল দাস ও হাসিবুল ইসলাম শুভ, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শামিম মিয়া ও সিরাজুম মনিরা, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের থাই চক, সমাজকর্ম বিভাগ ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের খাদিজা আক্তার, একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগ ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের নাজনিন নিগার, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মো. হৃদয় সরকার ও আবু তারেক।

এছাড়াও সংশ্লিষ্ট কোর্সে পূন:রেজিস্ট্রেশন- মাকের্টিং বিভাগ (ফলাফল-২০১৯) তিথী বোস শিখা ও একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগ (ফলাফল-২০১৯) মীর আফসানা।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *