Main Menu

মাটিরাঙ্গায় যুবলীগের কাউন্সিল অনুৃষ্ঠিত | বাংলারদর্পন

এমদাদ খান :

ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা পৌরসভাধীন ৬নং ওয়ার্ড যুবলীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

শুক্রবার বিকালের দিকে পানবাজারস্থ ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলের প্রথম অধিবেশনে সবাপতিত্ব করেন ৬নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি সুমন দে।

মাটিরাঙ্গা পৌর যুবলীগের সভাপতি মো. মোশাররফ হোসেন কাউন্সিলের উদ্বোধন করেন

 

কাউন্সিলে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক।

 

মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. হারুনুর রশীদ ফরাজি, সাবেক সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীর আলম, সাধারন সম্পাদক ও প্যানেল মেয়র মো. আলাউদ্দিন লিটন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক মো. জহিরুল ইসলাম খোন্দকার বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

 

মাটিরাঙ্গা পৌর যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মো. আলাউদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক অভি, পৌর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক তসলিম উদ্দিন রুবেল প্রমুখ প্রথম অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন।

 

মাটিরাঙ্গা পৌর আ. লীগের সহ-সভাপতি বাবুল বনিক, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মো. এমরান হোসেন,  মাটিরাঙ্গা পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর মো. শহীদুল ইসলাম সোহাগ, মহিলা আ. লীগ নেত্রী ও পৌর কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম এবং ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম প্রমুখ কাউন্সিল অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন।

 

কাউন্সিল অধিবেশনে বক্তারা বিএনপিকে গনবিরোধী আখ্যায়িত করে বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে উন্নয়নের পরিবর্তে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের নিধন করতে ১০০ দিনের কর্মসুচী ঘোষনা করেছিল। পাঁচ বছরে আওয়ামীলীগের ২১ নেতাকর্মীকে হত্যা করেছে। আওয়ামীগের নেতাকর্মীদের বাড়ি-ঘরে থাকতে দেয়া হয়নি। জনগনের উন্নয়নের নামে ওয়াদুদ ভুইয়াসহ কয়েকজন নেতাকর্মীর ভাগ্য বদল করেছে।

 

আগামী নির্বাচনের জন্য নেতাকর্মীদের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহনের আহবান জানিয়ে বক্তারা বলেন, যুবলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা আর শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অান্দোলনে আত্মনিয়োগ করতে হবে।

 

এর আগে যুবলীগের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন  মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. হারুনুর রশীদ ফরাজি, সাবেক সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীর আলম এবং সাধারন সম্পাদক ও প্যানেল মেয়র মো. আলাউদ্দিন লিটন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *