Main Menu

ফেনীর তিনটি অাসনে বিজয়ের পথে মহাজোটের ৩ প্রার্থী | বাংলারদর্পন

ফেনী প্রতিনিধি :

সারা দেশের মতো ফেনীর তিনটি আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। ৩৫৮টি কেন্দ্রে প্রায় সাড়ে ১০ লাখ ভোটার ভোট প্রদান করেন। বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া জেলার কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে একতরফা কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে বিএনপির প্রর্থীরা ভোট বাতিল করে পুনরায় ভোট গ্রহণের দাবি জানান। নিশ্চিত বিজয়ের পথে ফেনী-১ এর মহাজোটের প্রার্থী(নৌকা) শিরিন আখতার, ফেনী-২ এর আ’লীগের প্রার্থী(নৌকা) নিজাম হাজারি ও ফেনী-৩ এর মহাজোট প্রার্থী (লাঙ্গল) মাসুদ চৌধুরি। 

এদিকে সোনাগাজীর চর সাহাভিকারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে বিএনপির সমর্থকরা ব্যালট পেপার ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এ সময় তারা আওয়ামী লীগ কর্মী সায়দুল হক চুট্টুকে কুপিয়ে জখম করে এবং ছাত্রলীগ নেতা  শাকিল গুলিবিদ্ব হয় । একইভাবে চরলক্ষিগঞ্জ মাদ্রাসা ও বিষময় কেন্দ্রে হামলা চালায় বিএনপি নেতাকর্মীরা। পরে পুলিশ, র‌্যাব, সেনাবাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

বেলা ১২টার দিকে ফেনী-২ আসনের বিএনপি প্রার্থী অধ্যাপক জয়নাল আবদিন ভিপি সংবাদ সম্মেলন করে জানান, ১২৬টি কেন্দ্রের কোথাও কোন এজেন্টকে ভোটকেন্দ্রে সরকারি দলের লোকেরা প্রবেশ করতে দেয়নি। এমনকি ভোটের আগের দিন রাতে কয়েকটি কেন্দ্রে সরকার দলীয় লোকেরা ব্যালট পেপারে সিল মেরে বাক্স ভর্তি করে বলে অভিযোগ করেন। তিনি পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানান।

একইভাবে ফেনী-১ আসনের বিএনপি প্রার্থী রফিকুল আলম মজনু ও ফেনী-৩ আসনের বিএনপি প্রার্থী আকবর হোসেন বেলা ১টা সময় সংবাদ সম্মেলন করে একই অভিযোগ করে বলেন পুনরায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানান।

এদিকে ফেনী-২ আসনের মহাজোট প্রার্থী নিজাম উদ্দিন হাজারী বলেন, বিএনপির প্রার্থীরা অন্তঃকোন্দলে থাকায় ভোটাররা উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকা মার্কাকে বেছে নিয়েছেন। তিনি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী বলে জানান।

অপরদিকে ফেনী-৩ আসনের মহাজোট প্রার্থী লে.জে. (অবঃ) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী বিএনপি প্রার্থীদের অভিযোগ মিথ্যা এবং বানোয়াট বলে সাংবাদিকদের জানান।

এদিকে ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটারের উপস্থিতি কম দেখা গেলেও সকাল ৮টায় থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটকেন্দ্রগুলো ছিল উৎসবমুখর। ভোটাররা দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে তাদের মূল্যবান ভোট দিতে দেখা গেছে।

ফেনী জেলার তিনটি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২৫ জন প্রার্থী। এখানে ৫৩৮টি কেন্দ্রের ১৯২১টি ভোটকক্ষে ভোট গ্রহণ শেষ হয়। তিনটি আসনে মোট ভোটার ১০ লাখ ৪৬ হাজার ৬৬১ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লাখ ৩৩ হাজার ৮৭০ জন ও নারী ভোটার ৫ লাখ ১২ হাজার ৮০১ জন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *